লন্ডনে পালিয়ে যাবেন তৃণমূলের শেখ শাহজাহান! সন্দেশখালির বেতাজ বাদশাকে নিয়ে বিস্ফোরক দাবি ED-র

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ সন্দেশখালি (Sandeshkhali) ঘটনার পর দেড় মাসেরও বেশি সময় পেরিয়ে গিয়েছে। তবে এখনও অধরা তৃণমূলের শেখ শাহজাহান। এখনও রাজ্য পুলিশের খাতায় ফেরার সন্দেশখালির মূল অভিযুক্ত। এই পরিস্থিতিতে শাহজাহানের (Shahjahan Sheikh) আগাম জামিনের তীব্র বিরোধীতা করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট ওরফে ইডি (Enforcement Directorate’s)।

   

গত শুক্রবার শাহজাহানের আগাম জামিন মামলার শুনানি ছিল আদালতে। সেই মামলার শুনানিতেই শাহজাহানের আগাম জামিনের বিরোধিতা করে মারাত্মক আশঙ্কার কথা শোনান ইডির আইনজীবী। ইডির আইনজীবী বলেন, ‘আগাম জামিন পেলে শাহজাহান যদি লন্ডনে চলে যান, তাহলে গোটা মামলাই ভেস্তে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’

এদিন আদালতে ইডির আইনজীবী বলেন, শাহজাহান যদিও কোনও রকম দোষ না করে থাকে, উনি দোষীই না হন তাহলে কেন পালিয়ে বেরোচ্ছেন? গত ৫ই জানুয়ারি রেশন দুর্নীতির তদন্তে শাহজাহানের বাড়ি গিয়ে তার অনুগামীদের হাতে মার খেয়ে ফিরতে হয় ইডির আধিকারিকদের। এদিন কোর্টে ফের সেই প্রসঙ্গ তুলে ইডির আইনজীবী বলেন, শাহজাহান ‘ক্ষমতাবান’, মাত্র পনেরো মিনিটে তিন হাজার লোক জড়ো করে ফেলতে পারেন এই শেখ শাহজাহান। এদিন শাহজাহানের নামের সঙ্গে একাধিক বিশেষণ যুক্ত করা হয়। অভিযুক্ত তৃণমূল নেতার প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে ইডির আইনজীবী বলেন, শাহজাহান ‘ব্লু আয়েড বয়’, ‘টক অব দ্য টাউন’।

এরপরই পুরোনো রেকর্ড ঘেঁটে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে ইডি বলে, আগে অন্তত চারটি এফআইআর রয়েছে শাহজাহানের বিরুদ্ধে। খুন, খুনের চেষ্টা, বেআইনি জমায়েত, সরকারি কর্মীকে মারধর ও কাজে বাধা দেওয়া সহ একাধিক অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এত কিছুর পরও দাপটে ঘুরে বেড়িয়েছেন শাহজাহান। খুনের ধারাতে মামলার পরেও গ্রেফতার হয়নি তিনি।’

tmc leader sheikh shahjahan

আরও পড়ুন: DA অতীত, এবার একলাফে বাড়বে বেতনও! লোকসভার আগেই বিরাট পদক্ষেপ নিল রাজ্য সরকার

ইডির আইনজীবীর দাবি, ‘সরকারি দফতরে হামলার ঘটনাতেও শাহজাহানের সরাসরি যোগ রয়েছে। এই মামলাতেই শাহজাহানকে ফেরার ঘোষণা করেছে পুলিশ।’ এদিনও শাহজাহানের আইনজীবী তদন্তে সহযোগিতার আশ্বাস দেন। সেই সঙ্গেই আইনি রক্ষাকবচের আবেদন করেন তার মক্কেলের জন্য। ওদিকে ‘বেতাজ বাদশা’ শেখ শাহজাহানের গ্রেফতারের দাবিতে সরব সন্দেশখালির সাধারণ মানুষজন।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর