টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

চীনের টুনি লাইট বয়কটের ডাক দিলেন শুভেন্দু অধিকারী, তৃণমূলের অন্দরে বাড়ল জল্পনা

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ বেশ কিছুদিন ধরেই তাঁকে ঘিরে রাজনৈতিক মহলে জল্পনা তুঙ্গে। সেই জল্পনা আরও বাড়িয়ে দিলেন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। তৃণমূলের একজন হেভিওয়েট মন্ত্রী হওয়া সত্ত্বেও বেশ কিছুদিন যাবত দলের সঙ্গে বিশেষ একটা যোগাযোগ নেই শুভেন্দুর। দলের সঙ্গে বেশ একটা দূরত্ব তৈরি হয়েছে।

বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন শুভেন্দু অধিকারী
এরই মধ্যে তমলুকে শুক্রবার কালী পুজোর উদ্বোধনে এসে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। সেখানে গিয়ে মায়ের গলায় জবা ফুলের মালা এবং রজনীগন্ধার মালা পরিয়ে, ধুপ দিয়ে আরতি করে বললেন, ‘কিছুদিন আগে আমফান হওয়ার পর এখানে কেউ আসেনি। আমি এখানকার মানুষদের দেখতে বারবার ছুটে এসেছি’।

করোনা ভাইরাসের বিষয়েও মন্তব্য করলেন
করোনা ভাইরাসের প্রসঙ্গে তিনি বললেন, ‘করোনা ভ্যাকসিন খুব তাড়াতাড়ি প্রয়োজন। আমাদের মাথায় ক্যাপ, মুখ বন্ধ, চোখ বন্ধ, আমরা আড্ডা দিতে পারছি না। অন্যান্য বছর কালী পুজোতে মেতে ওঠে তমলুক শহর। কিন্তু এবছর করোনা সতর্কীকরন মেনেই অনেক বিধি নিষেধের মধ্যে দিয়ে কালী পুজ করছেন উদ্যোক্তারা’।

চীনের বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন শুভেন্দু
এরপরই চীনের বিরুদ্ধে সুর চড়ান মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। তিনি বলেন, ‘কিছুদিন আগেই আমাদের দেশের বেশ কয়েকজন বীর সন্তানদের অন্যায়ভাবে খুন করেছে চীন। তাই চীনের টুনি লাইট কেউ জ্বালাবেন না। সকলকে অনুরোধ, আপনারা সকলেই মাটির প্রদীপ ব্যবহার করবেন’।

প্রসঙ্গত, সূত্রের খবর তৃণমূলের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হওয়ার কারণে সম্প্রতি শুভেন্দু অধিকারীর বাড়িতে গিয়েছিলেন প্রশান্ত কিশোর। কিন্তু তিনি বাড়িতে না থাকায়, তাঁর সঙ্গে শুধুমাত্র ফোনে সৌজন্য বিনিময় হয়। কোন রাজনৈতিক আলোচনা হয়নি।

Back to top button