‘আমি তোকে কিডনি দান করব,’….রাখিতে ব্যতিক্রমী উপহার দিয়েই দাদাকে বাঁচাল বোন

বাংলাহান্ট ডেস্ক : কিছুদিন আগেই আমরা পালন করেছি রাখি পূর্ণিমা। দাদা-বোনের মধ্যে অমূল্য সম্পর্কের উদযাপন করা হয় এই দিনটিতে। দাদা-ভাইদের হাতে রাখি পরিয়ে দেন দিদি-বোনেরা। এছাড়াও চলে উপহার দেওয়া-নেওয়া। তবে এবছর এক বোন রাখিতে তার দাদাকে দিলেন অমূল্য উপহার।

রাখি পূর্ণিমার দিন রাখি পরানোর সাথে বোনের দেওয়া এই উপহার প্রাণ বাঁচাল দাদার। গত বছর ডিসেম্বর মাস থেকে ডায়ালিসিস শুরু হয় হরেন্দ্রর(৩০)। কিডনি (Kidney) ফেলিয়ারের কথা হরেন্দ্র জানতে পারেন জানুয়ারি মাসে। ক্লান্তি, খিদে কমে যাওয়ার মতো একাধিক উপসর্গ দেখা দিতে থাকে তার শরীরে।

   

আরোও পড়ুন : সেপ্টেম্বরে এত্তদিন ছুটি! স্কুল, কলেজের পড়ুয়াদের জন্য প্রকাশ্যে এল তালিকা

এরপর ডিসেম্বর মাস থেকে ডায়ালিসিস নরেন্দ্রর রুটিনে পরিণত হয়। এরপর দিন দিন স্বাস্থ্যের অবনতি হতে থাকে তার। দাদার এই কষ্ট ভাবিয়ে তোলে বোন প্রিয়াঙ্কাকে(২৩)। বোন প্রিয়াঙ্কা সিদ্ধান্ত নেন তার একটি কিডনি তিনি দাদাকে দান করবেন। এরপর রীতিমতো ত্রাতার ভূমিকায় অবতীর্ণ হন প্রিয়াঙ্কা।

আরোও পড়ুন : এক্কেবারে ফ্রি’তেই মিলবে ট্রেন টিকিট! অবাক লাগছে? দেখুন কারা পাবেন এই দুর্দান্ত সুযোগ

প্রিয়াঙ্কাকে বহু জন বলেছেন যে এভাবে সে যদি কিডনি দান করে তাহলে ভবিষ্যতে নানান শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে তার। এমনকি বাধা আসতে পারে মা হওয়ার পথে। কিন্তু এইসব কথাকে উড়িয়ে প্রিয়াঙ্কা নিজের সিদ্ধান্তে অটল থেকেছেন। হরেন্দ্রর কিডনি প্রতিস্থাপন করা হয় গত ১০ই আগস্ট।

Raksha Bandhan

চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন প্রিয়াঙ্কার মা হওয়ার পথে কিডনি সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়াবে না ভবিষ্যতে। বোনের দেওয়া কিডনি পেয়ে স্বাভাবিকভাবেই নতুন জীবন পেয়েছেন হরেন্দ্র। তিনি জানিয়েছেন তার জীবনের মূল চালিকাশক্তি তার বোন। রাখি পূর্ণিমায় তিনি যেন অমূল্য উপহার পেলেন বোনের কাছ থেকে।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর