সুপ্রিম কোর্টে ‘বিরাট’ জয় পেল রাজ্য নির্বাচন কমিশন! মুখে হাসি রাজীব সিনহার

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ মিটে গিয়েছে পঞ্চায়েত ভোট (Panchayat Vote)। বেরিয়ে গিয়েছে ফলাফলও। বর্তমানে চলছে বোর্ড গঠন পক্রিয়া। রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণার সময় থেকে শুরু করে এই ভোটানুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে দফায় দফায় উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল বিভিন্ন এলাকা। ভোট সন্ত্রাসের ঘটনায় প্রশ্নের মুখে পড়েছিল নির্বাচন কমিশন (Election Commission of West Bengal)। লাগাতার সন্ত্রাস হিংসার ঘটনায় রাজ্যে নিজেদের পর্যবেক্ষক পাঠাতে চেয়ে নোটিশ দিয়েছিল জাতীয় মানবাধিকার কমিশন (National Human Rights Commission)।

এরপরই জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সেই সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় রাজ্য নির্বাচন কমিশন। হাইকোর্ট মানবাধিকার কমিশনের নোটিশ খারিজ করে। তবে তাতেও ঘটনার সমাপ্তি হয়নি। এরপর সেই মামলা গড়ায় সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত।

   

তবে শীর্ষ আদালতে গিয়েও মুখ পুড়লো মানবাধিকার কমিশনের। এই মামলায় সুপ্রিম কোর্টের রায়, অতি সক্রিয়তায় দেখিয়েছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। বিচারপতি বি ভি নাগারত্নার নেতৃত্বাধীন বেঞ্চের পর্যবেক্ষণ, ভোট হিংসায় নির্বাচন কমিশনকে নোটিশ পাঠানো ও জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের পর্যবেক্ষক নিয়োগের পদক্ষেপ সংবিধান বিরোধী।

আরও পড়ুন: আরবে বসে পঞ্চায়েতের মনোনয়ন, হাইকোর্টের চাপে TMC প্রার্থীর বিরুদ্ধে মারাত্মক পদক্ষেপ কমিশনের

বিচারপতি নাগরত্ন এও বলেন, ‘‘অনেক জায়গা রয়েছে, যেখানে মানবাধিকার কমিশন হস্তক্ষেপ করতে পারে। কিন্তু তারা শুধুমাত্র কিছু জায়গায় হস্তক্ষেপ করছে। ‘সুপারবডি’-র মতো আচরণ করছে।’

শনিবার দেশের শীর্ষ আদালত রায় যে নিঃসন্দেহে রাজ্য নির্বাচন কমিশনের ও কমিশনার রাজীব সিনহার বড় জয় বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের। সুপ্রিম কোর্টের মতে অতি সক্রিয়তায় দেখিয়েছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। নির্বাচন কমিশনকে নোটিশ পাঠানো ও পর্যবেক্ষক নিয়োগের পদক্ষেপ সঠিক নয় বলে জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

আরও পড়ুন: আজ থেকেই বদলে যাবে আবহাওয়া! চলবে ঝড়-বৃষ্টির তাণ্ডব, কোথায় কোথায় অশনি সংকেত?

img thvli supreme court 2 1 7ia6l7u0

প্রসঙ্গত, পঞ্চায়েত ভোটকে কেন্দ্র করে একাধিক জায়গায় লাগাতার সন্ত্রাস ও হিংসার ঘটনায় জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের তরফে পর্যবেক্ষক নিয়োগের কথা জানানো হয়। বলা হয় কমিশনের ডিজি (তদন্ত) বিশেষ পর্যবেক্ষক হিসেবে কাজ করবেন। রাজ্য নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সমন্বয় রেখে বিভিন্ন স্পর্শকাতর এলাকা চিহ্নিত করবেন ও কমিশনের কাছে রিপোর্ট পেশ করবেন। পরে এই নিয়ে রাজ্যের মুখ্যসচিব ও ডিজিকেও নোটিশ দেওয়া হয়েছিল। এই নিয়ে মামলা হলে হাইকোর্ট নির্বাচন কমিশনের পক্ষে রায় দেয়। এবার সুপ্রিম কোর্টেও রাজ্য নির্বাচন কমিশনের স্বস্তি।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর