‘আমাদের রাস্তায় বসিয়ে এসেছেন…’, প্রাক্তন বিচারপতির বিরুদ্ধে মুখ খুললেন চাকরিপ্রার্থী মাহি

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ২০২৪ লোকসভা ভোটে বাংলায় দাঁড়িয়ে অন্যতম হাইভোল্টেজ কেন্দ্রগুলির মধ্যে একটি তমলুকের। তমলুকের বিজেপি প্রার্থী হাইকোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় (Abhijit Gangopadhyay)। হেভিওয়েট এই প্রার্থীর বিরুদ্ধে তৃণমূলের হয়ে লড়বেন তরুণ মুখ দেবাংশু ভট্টাচার্য। বামেদের বাজি আইনজিবী সায়ন বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে এদের থেকে একধাপ এগিয়ে ISF টিকিট দিয়েছে প্রতিবাদী চাকরিপ্রার্থীকে মইনুদ্দিন আহমেদ মাহি। ইতিমধ্যেই তিনি ভোটপ্রচার শুরু করে দিয়েছেন।

শনিবার নন্দীগ্রাম থেকে ভোটের প্রচার শুরু করলেন আইএসএফ প্রার্থী মইনুদ্দিন। এদিন নন্দীগ্রামের দাউদপুর ভাটপুকুর বাজার এলাকায় প্রচার জনসংযোগ করেন তিনি। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে আইএসএফ প্রার্থীর প্রশংসা করে অভিজিৎ বলেছিলেন, ‘একটি সাক্ষাৎকারে তিনি (আইএসএফ প্রার্থী) ভদ্রলোকের মতো কথা বলেছেন। যে কোনও ভদ্রলোককেই আমি সম্মান জানাই। তাকেও সম্মান জানাব। একটি সুষম লড়াই হবে।’

   

আর এরপরই শনিবার ভোটপ্রচারে মইনুদ্দিনের মুখে উঠে এল অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের প্রসঙ্গ। অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের উদ্দেশে বলেন, ‘যারা বঞ্চিত সমাজকে খুব কাছ থেকে দেখেছেন, তারা বঞ্চিত সমাজের যন্ত্রণাটা বোঝেন। তাই হয়ত তিনি প্রশংসা করছেন।’

আইএসএফ প্রার্থী বলেন, ‘আমিও ব্যক্তিগতভাবে ওনাকে সম্মান করি। কিন্তু ওনার রাজনৈতিক মতাদর্শের সঙ্গে আমার রাজনৈতিক মতাদর্শের বিস্তর ফারাক রয়েছে।’ তার কথায়, ‘যতদিন উনি বিচারপতির আসনে ছিলেন, তার নির্দেশনামা নিয়ে আমাদের কোনও সংশয় নেই। কিন্তু হঠাৎ উনি বিচারপতির আসন ছেড়ে আমাদের রাস্তায় বসিয়ে এসেছিলেন। আমি একজন চাকরিপ্রার্থী হিসেবে তমলুকের মাটিতে বিচার চাইতে এসেছি।’

abhijit job

আরও পড়ুন:BJP প্রার্থী রেখা পাত্রের সভায় ‘ভয়ঙ্কর’ হামলা! মারধর, ভাঙচুর, দেওয়া হল প্রাণনাশের হুমকিও!

প্রসঙ্গত, এর আগে সংবাদমাধ্যমের সামনে মাহি বলেছিলেন, ‘এখানে আমি চাকরিপ্রার্থীদের কথা তুলে ধরব। এই তমলুক কেন্দ্রে সেই পরিবেশ রয়েছে। তমলুকে চোর, আইনজীবী, প্রাক্তন বিচারপতি সকলে আছেন।’ আইনের দোহাই দিয়ে নিয়োগ আটকে রয়েছে বলেও সেই সময় মন্তব্য করেছিলেন মাহি।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর