টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

চোখে চোখ রেখে কথা! পুলিশকে ‘২ টাকার চাকর” বলা TMC বিধায়ককে ক্ষমা চাইয়েই ছাড়লেন SDPO

বাংলাহান্ট ডেস্ক : থানায় (Police Station) ঢুকে রীতিমতো দাদাগিরি করছিলেন তৃণমূল (Trinamool Congress) বিধায়ক (MLA)। “২ টাকার চাকর” বলেও কটাক্ষ করেন পুলিশকে। কিন্তু এই দাদাগিরির ফল তাকে পেতে হল হাতেনাতে। এসডিপিও (SDPO) বাধ্য করলেন তৃণমূল বিধায়ককে ক্ষমা চাইতে। এই ঘটনার ভিডিও (Video) এখন রীতিমতো ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social media)। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার উস্তি (Usti) থানায়।

এই ঘটনার সূত্রপাত গত রবিবার। এক বৃদ্ধার দেহ কুয়ো থেকে উদ্ধার হয় উস্তি থানার অন্তর্গত ভোলেরহাট থেকে। কিন্তু কিভাবে মৃত্যু হল এই বৃদ্ধার? অভিযোগ নিজেরই ছেলে খুন করেছেন এই বৃদ্ধাকে। এরপর পলাতক সেই অভিযুক্ত। অন্যদিকে, উস্তি থানার পুলিশ এই ঘটনার পর গ্রেফতার করে জয়ন্ত চৌধুরী নামের এক তৃণমূল নেতাকে। অভিযোগ এই জয়ন্ত চৌধুরী উস্কানি মূলক মন্তব্য করে বিঘ্নিত করার চেষ্টা করছেন এলাকার শান্তি শৃঙ্খলা। জয়ন্ত চৌধুরীর গ্রেফতারির খবর পেয়ে থানায় উপস্থিত হন মগরাহাট পশ্চিমের তৃণমূল বিধায়ক তথা প্রাক্তন মন্ত্রী গিয়াসউদ্দিন মোল্লা।

অভিযোগ এই বিধায়ক থানায় ঢুকে অসভ্য আচরণ করতে থাকেন পুলিশ কর্মীদের সাথে। এমনকি অপমানজনক কথাও বলেন পুলিশের উদ্দেশ্যে। এরপর থানায় পৌঁছানায় ডায়মন্ড হারবারের এসডিপিও মিতুন দে। এরপর তৃণমূল বিধায়কের সাথে বাকবিতণ্ডা শুরু হয় তার। সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন রীতিমতো ভাইরাল।

TMC mla

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে তৃণমূল বিধায়ক গিয়াসউদ্দিন মোল্লা বসে রয়েছেন থানার সিঁড়িতে। এসডিপিও তাকে প্রশ্ন করছেন, “এত তৎপরতা কেন অভিযুক্তকে ছাড়াবার জন্য?” এরই সাথে তার বক্তব্য, “আপনি কথায় কথায় পুলিশের উর্দি খুলে নেওয়া, বদলির হুমকি দেন।” এই জবাবের প্রেক্ষিতে গিয়াসউদ্দিন পালটা পুলিশ “২ টাকার চাকর” বলে কটাক্ষ করেন।

Related Articles