‘কোনও ছুটির দরকার নেই’, পিরিয়ড চলাকালীন মেয়েদের সবেতন ছুটির ঘোর বিরোধিতা স্মৃতি ইরানির

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ পিরিয়ড চলাকালীন মেয়েদের আলাদা করে ছুটি (Menstruation Leave) দেওয়ার কোনও দরকারই নেই, এমনটাই মত কেন্দ্রীয় মহিলা ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রী স্মৃতি ইরানির (Union Minister Smriti Irani)। তার মন্তব্য, পিরিয়ড হওয়া মানেই কোনও মেয়ে প্রতিবন্ধী হয়ে যায়, এমনটা একদমই না। এটি মেয়েদের শারীরবৃত্তীয় প্রক্রিয়ারই একটি অংশ মাত্র। তাই পিরিয়ড চলার সময় আলাদা করে ছুটির কোনও প্রয়োজনীয়তা নেই।

   

বুধবার মহিলাদের ঋতুস্রাবকালীন স্বাস্থ্য নীতির প্রসঙ্গ ওঠে রাজ্যসভায়। সেই সময় রাজ্যসভায় সাংসদ মনোজ কুমার ঝা-এর এক প্রশ্নের জবাবে স্মৃতি ইরানি বলেন, পিরিয়ডস জীবনের একটি স্বাভাবিক অংশ। মহিলা কর্মীদের জন্য বাধ্যতামূলক সবেতনে পিরিয়ডস সংক্রান্ত ছুটির ধারণার বিরোধিতা করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।

স্মৃতি ইরানি বলেন, ‘ মহিলাদের কাছে পিরিয়ডস এবং ঋতুচক্র কোনও প্রতিবন্ধকতা নয়, এটি মহিলাদের জীবনযাত্রার একটি প্রাকৃতিক অংশ’। মন্ত্রীর আরও বক্তব্য, কর্মক্ষেত্রে সর্বদাই পুরুষ-নারীর সমানাধিকারের প্রশ্ন ওঠে। তাই পিরিয়ড চলাকালীন মেয়েদের আলাদা করে বিশেষ সুবিধা দেওয়া মানে তাদের সমানাধিকারের অধিকারে হস্তক্ষেপ করা। ইরানির মতে, মাসিকের সময় পরিচ্ছন্নতা ও স্বাস্থ্যবিধি কতটা মেনে চলা হচ্ছে, সে দিকে অধিক নজর দেওয়া উচিত।

আরও পড়ুন: ২০ ঘণ্টা তল্লাশি! জেল খাটা প্রাক্তন TMC বিধায়কের বাড়ি থেকে কি নিয়ে গেল আয়কর দফতর?

তিনি আরও বলেন, “পিরিয়ড চলাকালীন কিছু সামাজিক নিষেধাজ্ঞা মেনে চলতে হয়। ফলে মহিলাদের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ হয়। স্বাধীনভাবে ঘোরাফেরায় সমস্যায় পড়তে হয়। এই নিয়ে সমাজে বহু কুসংস্কারও রয়েছে। অনেক সময় সামাজিকভাবে হেনস্থারও শিকার হতে হয় মেয়েদের। তাই এই বিষয়ে বিশেষভাবে গুরুত্ব দেওয়া উচিত। ”

smriti irani

রাজ্যসভায় ‘প্রমোশন অফ মেনস্ট্রুয়াল হাইজিন ম্যানেজমেন্ট (MHM)’ স্কিমের কথাও তুলে ধরেন মন্ত্রী। প্রসঙ্গত, এই স্কিমে ১০ থেকে ১৯ বছর বয়সী মেয়েদের ঋতুস্রাবের সময় বিভিন্ন শিক্ষা এবং সচেতনতামূলক কর্মসূচির মাধ্যমে পিরিয়ডসের স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে আরও সচেতন করে তোলার চেষ্টা করে।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুর সংসদে ঋতুস্রাবকালীন সবেতন ছুটির প্রসঙ্গ তোলেন। সেই প্রেক্ষিতে স্মৃতি ইরানির বক্তব্য, ‘‘সংসদে এমন কোনও প্রস্তাব রাখা উচিত নয় যেখানে মহিলাদের সমান সুযোগ থেকে বঞ্চিত হতে হয়। কর্মক্ষেত্রে সবেতন পিরিয়ডসের ছুটি বাধ্যতামূলক করার জন্য আপাতত সরকার কোনও প্রস্তাব বিবেচনা করছে না।”