টাইমলাইনবিনোদন

মেয়ে মানেই তাকে মা হতেই হবে এমন কোনো মানে নেই, বিয়ের ছয় বছর পর মুখ খুললেন ঊর্মিলা

বাংলাহান্ট ডেস্ক: মাতৃত্বেই (Motherhood) নারীর পূর্ণতা। একজন নারীর জীবন তখনি সার্থক হয় যখন সে মা ডাক শোনে। এমন কথা বহুদিন ধরে চলে আসছে। কিন্তু সকলেই কি মা হতে চায়? অভিনেত্রী ঊর্মিলা মাতণ্ডকরের (Urmila Matondkar) মতে, নারী মানেই তাঁকে সন্তান জন্ম দিতে হবে এমন কোনো মানে নেই। আর কেউ যদি মা হতে না চায় তাতে দোষেরও কিছু নেই।

বলিউডের এক সময়কার জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঊর্মিলা এখন একজন রাজনীতিবিদ। দীর্ঘ ছয় বছরের বিবাহিত জীবন তাঁর ও মহসিন আখতার মীরের। কিন্তু এত বছরেও ঊর্মিলার সন্তানসম্ভবা হওয়ার খবর শোনা যায়নি। সম্প্রতি এ বিষয়েই প্রশ্ন করা হয়েছিল তাঁকে।


ঊর্মিলার কাছে প্রশ্ন রাখা হয়েছিল, তিনি কি মা হওয়ার ব‍্যাপারে চিন্তা ভাবনা করছেন? অভিনেত্রী উত্তর দেন, “হ‍্যাঁ এবং না। যদি সেটা হয় তাহলে হবে। আমি মা হওয়ার জন‍্য অপেক্ষা করে নেই। আবার এমনো নয় যে আমি মা হতে চাই না। সব মেয়েদেরই মা হতে হবে এর কোনো মানে নেই। সঠিক সময়েই মাতৃত্ব আসা উচিত। আমি বাচ্চাদের ভালবাসি। কিন্তু এমন অনেক শিশু রয়েছে যাদের আমাদের ভালবাসা আর যত্নের প্রয়োজন। এমন কোনো মানে নেই যে নিজেকেই সন্তানের জন্ম দিতে হবে।”

নিজের কথাটা বুঝিয়ে তিনি বলেন, সব মেয়েই যে সন্তান জন্ম দেওয়ার কষ্ট সহ‍্য করতে চায় তা নয়। কিন্তু তার মানে এই নয় যে তারা শিশুদের ভালবাসে না। মেয়েরা সন্তান জন্ম দিতে পারে মানেই সেই কষ্টটা সহ‍্য করতে হবে সেটা নয়, দাবি ঊর্মিলার। মাতৃত্ব মানে তো শুধু সন্তানের জন্ম দেওয়া নয়। দায়িত্ববোধ, স্নেহ এগুলোর প্রকাশই আসলে মাতৃত্ব।

প্রসঙ্গত, ‘কর্ম’ ছবির হাত ধরে একজন শিশুশিল্পী হিসাবে বলিউডে পা রেখেছিলেন ঊর্মিলা। পরবর্তীকালে ‘নরসিংহ’ ছবিতে নায়িকা হিসাবে আত্মপ্রকাশ করেন তিনি। রঙ্গিলা, জুদাই, সত‍্য, পিঞ্জর, ভূত এর মতো ছবিতে অভিনয় করেছেন ঊর্মিলা।

Related Articles