টাইমলাইনখেলাক্রিকেট

খারাপ সময় কাটতেই চাইছে না বিরাটের, এবার হারাতে পারেন টেস্ট ফরম্যাটের অধিনায়কত্বও

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: ভারতীয় দলের টেস্ট অধিনায়ক বিরাট কোহলির খারাপ সময় যেন কাটছেই না। একদিকে গত দুই বছর ধরে ব্যাট হাতে নেই কোনও শতরান, অপরদিকে খাতায় কলমে দুর্বল দক্ষিণ আফ্রিকায় বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ জয়ের স্বপ্নও চুরমার হয়ে গেছে। বিসিসিআই ইতিমধ্যেই বিরাটকে ওয়ানডে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দিয়েছে। তার আগে বিরাট নিজেই টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব ছেড়েছেন। এই সিরিজ হারের পর বিরাটের টেস্ট অধিনায়কত্ব নিয়েও বড় প্রশ্নচিহ্ন উঠে গিয়েছে। এখন নির্বাচকরা বিরাটের পরিবর্তে অন্য খেলোয়াড়ের হাতে অধিনায়কত্ব তুলে দিতে পারেন।

দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট সিরিজ হারের পর বিরাট কোহলির টেস্ট অধিনায়কত্ব পদের সবচেয়ে বড় প্রতিযোগী হতে পারেন রোহিত শর্মা। তবে বিসিসিআই সাদা এবং লাল বলের ক্রিকেটের জন্য ভিন্ন ভিন্ন অধিনায়ক চায় এবং এমন পরিস্থিতিতে বিরাটের জায়গায় ২৯ বছর বয়সী লোকেশ রাহুলকে পরবর্তী অধিনায়ক করা যেতে পারে। সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব করেছেন রাহুল। অধিনায়কত্ব তার ব্যাটিং ফর্মকে প্রভাবিত করে না।

এরপরের ওডিআই সিরিজে চোটের জন্য রোহিতের বাইরে থাকার কারণে, বিসিসিআই রাহুলের হাতে অধিনায়কত্ব হস্তান্তর করে এবং স্পষ্ট করে দেয় যে তাকেও অধিনায়কত্বের জন্য বিকল্প হিসেবে ভাবা হচ্ছে। অন্যদিকে, বিরাটকে সরিয়ে রোহিতকে টেস্ট দলের অধিনায়ক করা খুব একটা যুক্তিযুক্ত সিদ্ধান্ত হবে এমনটাও হয়, কারণ রোহিতের বয়স বর্তমানে ৩৪ বছর, সেই সঙ্গে টেস্ট ফরম্যাটে তার অভিজ্ঞতাও কোহলির তুলনায় অনেক কম।

কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের পরেই হয়তো বিরাটকে সরিয়ে দেওয়া হবে না। কারণ বিরাটকে একদিনের ক্রিকেটের অধিনায়ক থেকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্তের পর বিরাট কোহলি ও বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলীকে নিয়ে বহু বিতর্ক তৈরি হয়েছে। তাই এমন পরিস্থিতিতে বিরাটের কাছ থেকে টেস্ট অধিনায়কত্ব ছিনিয়ে নেওয়ার সুবর্ণ সুযোগও থাকলেও এখনই হয়তো সেই চরম সিদ্ধান্ত নেবে না বিসিসিআই।

Related Articles

Back to top button