আবহাওয়াটাইমলাইন

৪৮ ঘন্টার মধ্যে নামবে তাপমাত্রা, নভেম্বরেই শীতের পূর্বাভাস দিল আবহাওয়া দপ্তর

weather update : প্রতি বছর পুজোর পর থেকেই হালকা ঠাণ্ডা আমেজ পড়তে শুরু করে। তবে এই বছর সেই শীত বেশ কিছুটা এগিয়ে আসবে বলেই জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা যাচ্ছে, বর্তমানে নিম্নচাপের কারনে তাপমাত্রা একটু বেশি থাকলেও ৪৮ ঘন্টার মধ্যে আবহাওয়ার পরিবর্তন ঘটবে


দুদিন পর থেকেই রাতের তাপমাত্রা বেশ খানিকটা কমবে বলেই জানাচ্ছেন আবহাওয়া দপ্তরের আধিকারিকরা। হাঁড়কাঁপানো শীত না পড়লেও হেমন্তের আবহাওয়া উপভোগ করা যাবে। রাতে ও ভোরের দিকে হাল্কা শীতের আমেজ টের পাওয়া যাবে বাংলায়।

অন্যদিকে দেশে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ইতিমধ্যেই তাপমাত্রা বেশ খানিকটা নেমেছে। নভেম্বরের দ্বিতীয় দিনেই দিল্লিতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০-এ নেমেছে। এর আগে, দিল্লির তাপমাত্রা গত ২৬ বছরের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। ২৯ অক্টোবর দিল্লি সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১২.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করেছিল যা ১৯৯৪ সালের পর থেকে অক্টোবরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। এখনো পর্যন্ত ১৯৩৭ সালের ৩১ অক্টোবর দিল্লিতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ৯.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

ভারতের অন্য রাজ্যগুলির মধ্যে জম্মু-কাশ্মীর, শ্রীনগরে তাপমাত্রা শূন্য। লুধিয়ানা, পাঞ্জাব পুনে ও দেরাদুনের তাপমাত্রা ১৪.৩ ডিগ্রী।হিমাচল প্রদেশের লাহুল-স্পিটিতে তুষারপাত শুরু হয়েছে। কাইলং অঞ্চলে তুষারপাতের কারণে, বরফের চাদর জমি থেকে প্রায় 8 ইঞ্চি বেড়েছে। উঁচু পর্বতমালা ও হিল স্টেশনগুলি আরও সুন্দর দেখাতে শুরু করেছে। ইতিমধ্যেই সর্বনিম্ন তাপমাত্রা মাইনাস শূন্য দশমিক আট ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।

 

 

 

Back to top button