দক্ষিণ ভারতীয় হলেও বাংলায় তুখোড়, কপালে ‘ক’ লেখা টিপ কেন পড়েন ঊষা উত্থুপ জানেন?

   

বাংলাহান্ট ডেস্ক: ঊষা উত্থুপ (Usha Uthup), নামটা শুনলেই চোখের সামনে ভেসে ওঠে কোঁকড়া চুল, হাসিমুখের মিষ্টি এক গায়িকা। কপালে বড়সড় ‘ক’ লেখা একটি টিপ পরে দাপুটে গায়কীতে যিনি গেয়ে ওঠেন, ‘কলকাতা কলকাতা ডোন্ট ওরি কলকাতা’। জন্মসূত্রে দক্ষিণী হলেও বাংলা ভাষায় তাঁর দখল প্রতিবার মুগ্ধ করেছে সকলকে।

ভিন্ন ধরণের গায়কীর জন্য বিখ্যাত তিনি। এমন ভারী মহিলা কণ্ঠ সচরাচর শোনা যায়না। আর এই কণ্ঠস্বরই তাঁকে আর সবার থেকে আলাদা করে। বিভিন্ন ভাষায় বহু সুপারহিট গান গাইলেও বাংলা ভাষার প্রতি আলাদা টান রয়েছে তাঁর। ‘হরি ওম হরি’ থেকে ‘ডার্লিং’ তাঁর দাপুটে কণ্ঠে জায়গা করে নিয়েছে বহু ক্লাসিক গান। দক্ষিণ ভারতীয় হলেও বলিউডে নিজের জায়গা নিজের দমে বানিয়েছেন ঊষা।

Why does usha uthup wear a bindi written in bengali

এখন বয়স বাড়লেও ঊষা উত্থুপের কণ্ঠ কিন্তু অমলিন। এখনো তিনি সেজেগুজে মঞ্চে উঠলে শোরগোল পড়ে যায় দর্শক মহলে। বাংলায় ‘ক’ লেখা টিপও এখনো শোভা পায় তাঁর কপালে। কিন্তু কখনো ভেবে দেখেছেন এমন ভিন্ন ধরণের স্টাইল কেন গায়িকার? বড়সড় ‘ক’ লেখা টিপটির তাৎপর্যই বা কী?

আসলে টিপের ওই ‘ক’ কলকাতার আদ্যক্ষরকে বোঝায়। ঊষা উত্থুপের কলকাতা প্রেমের কথা সকলেই প্রায় জানেন। নিজে দক্ষিণ ভারতীয় হলেও এই শহরের প্রতি আলাদাই টান রয়েছে তাঁর। যে টানে বারবার তিনি ছুটে আসেন তিলোত্তমায়। যে টানেই তিনি গেয়েছেন ‘কলকাতা কলকাতা’। এই শহরকে ভালবেসেই নিজের স্টাইল স্টেটমেন্টে স্থান দিয়েছেন ঊষা। ‘ক’ লেখা টিস আসলে কলকাতার জন্যই।

ঊষা উত্থুপের স্ট্রাগল জীবনের অনেকটা জুড়েই রয়েছে শহর কলকাতা। পার্কস্ট্রিটের নামী রেস্তোরাঁ ট্রিঙ্কাসে তাঁর কেরিয়ার শুরু হয়। দিল্লির নাইটক্লাবেও গান গাইতেন তিনি, তাও আবার শাড়ি পরে। এমনি এক নাইটক্লাবে তাঁর গান শুনতে এসেছিলেন সুপারস্টার দেব আনন্দ। তিনিই বলিউডে গান গাওয়ার প্রস্তাব দেন ঊষাকে। সঙ্গীতের সফর শুরু হয় ঊষার। বাকিটা ইতিহাস।

Avatar
Niranjana Nag

সম্পর্কিত খবর