‘ভারতের রাষ্ট্রীয় ধর্ম সনাতন’, হিন্দু রাষ্ট্রের বিতর্কের মাঝেই জল্পনা বাড়ালেন যোগী আদিত্যনাথ

বাংলা হান্ট ডেস্ক: ফের বিতর্ক উস্কে দিলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath)। উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেই সনাতন ধর্ম নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন ডিএমকে নেতা উদয়নিধি স্ট্যালিন (Udhayanidhi Stalin)। তারই এবার পাল্টা দিতে গিয়ে সনাতন ধর্মকে ‘ভারতের রাষ্ট্রীয় ধর্ম’ বলে মন্তব্য করেন।

বুধবার উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী ইন্দোরের নাথ মন্দিরে ধ্বজস্তম্ভ উন্মোচনের অনুষ্ঠানে বলেন, ‘এটা খুবই দুর্ভাগ্যের বিষয় যে ভারতে বসবাসকারী কিছু মানুষ এখনও সনাতন ধর্মকে অপমান করে চলেছেন। সনাতন ধর্ম হল ভারতের রাষ্ট্রীয় (জাতীয়) ধর্ম। কেউ এর চিরস্থায়ীতা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে পারেন না। সনাতন ধর্ম প্রাচীনকাল থেকে বারবার আক্রমণের মুখে পড়েছে। ঈশ্বরের অস্তিত্ব এবং বাস্তবতাও প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে।’

   

উল্লেখ্য, সম্প্রতি সনাতন ধর্মকে ডেঙ্গি (Dengue) এবং ম্যালেরিয়ার (Malaria) সঙ্গে তুলনা করেন উদয়নিধি। তিনি বলেছিলেন, ‘কিছু জিনিসের প্রতিবাদ করা যায় না, সেগুলির অবলুপ্তি ঘটনা দরকার। আমরা ডেঙ্গি, ম্যালেরিয়া কিংবা করোনার বিরোধিতা করতে পারি না, আমরা সেটা নির্মূল করি। ঠিক সেভাবেই আমাদের সনাতন ধর্মকে নির্মূল করতে হবে।’

এদিকে রামমন্দির তথা অযোধ্যা (Ayoddha) নিয়েও এদিন মুখ খোলেন যোগী‌। তিনি বলেন, ‘মুঘল শাসক বাবর অযোধ্যায় ভগবান রামের মন্দির ভেঙে যাওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু ভাগ্যের এমনই খেলা যে ৫০০ বছর পর সেই অযোধ্যাতেই এক বিশাল মন্দির তৈরি হচ্ছে।’ তাঁর কথায়, ‘হিন্দু কোনও একটি ধর্মীয় শব্দ নয়। এটি ভারতীয়দের একটি সংস্কৃতিক পরিচয়, দুর্ভাগ্যবশত কিছু লোক হিন্দু পরিচয়কে একটি সংকীর্ণ পরিধির মধ্যে আনার চেষ্টা করছে। ভারত, পাকিস্তান (Pakistan) এবং বাংলাদেশের (Bangladesh) মুসলমানরা যখন হজ পালনের জন্য মক্কায় যান, তখন সৌদি আরবে তাদের হিন্দু বলে সম্বোধন করা হয়।’

ইন্ডিয়া এবং ভারত নিয়ে চলা বিতর্ক নিয়েও এদিন মন্তব্য করেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী। যোগী বলেন, ‘প্রাচীনকাল থেকেই এই দেশকে ভারত বলে সম্মোধন করা হয়েছে আর এই দেশের নাগরিকদের হিন্দু বলা হয়।’ এদিন হিন্দু পরিচয় প্রকাশ করার জন্য ব্রিটিশ‌ প্রধানমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসাও করেন যোগী আদিত্যনাথ।

Avatar
Monojit

সম্পর্কিত খবর