টাইমলাইনভারতরাজনীতি

‘৯৫ শতাংশ মানুষই গাড়ি ব্যবহার করেন না, তেলের দাম বাড়লে কোন সমস্যা নেই’, অদ্ভুত দাবি বিজেপি মন্ত্রীর

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ দেশে উত্তরোত্তর বাড়ছে জ্বালানি তেলের দাম। পেট্রোল-ডিজেেলের দাম (petrol-disel price) দিনকে দিন বেড়েই চলেছে, হচ্ছে আকাশছোঁয়া। এই পরিস্থিতিতে বাইরে বেরোলেই নাভিশ্বাস উঠে যাচ্ছে সাধারণ মানুষের। তবে এই বিষয়ের জন্য প্রথম থেকেই কেন্দ্র সরকারকে আক্রমণ করে এসেছে বিরোধীরা। তবে এবার এই বিষয়ে এক বিজেপির নেতার মন্তব্য নিয়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

পেট্রোল-ডিজেেলের দাম বৃদ্ধির সঙ্গে সমানতালে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস এবং শাক সবজির দামও। তবে এই পরিস্থিতিতে উত্তর প্রদেশের বিজেপি মন্ত্রী উপেন্দ্র তিওয়ারি (Upendra Tiwari) এক অদ্ভুত দাবী করে বসলেন, যা নিয়ে শোরগোল পড়ে গেল রাজনৈতিক মহলে।

উপেন্দ্র তিওয়ারি বলেন, ‘দেশের মোদী সরকার আসার পর মানুষের আর্থিক অবস্থা আগের তুলনায় অনেক ভালো হয়েছে।গরিব মানুেষর হাতেও এসেছে ভালো পরিমাণ অর্থ। দেশের প্রায় ৯৫ শতাংশ মানুষই চার চাকা ব্যবহার করেন না। খুব কম সংখ্যক মানুষই গাড়ির ব্যবহার করেন। সুতরাং, তেলের দাম বাড়লে, সাধারণ মানুষের জীবনে খুব একটা প্রভাব পড়বে না’।

প্রসঙ্গত, তেলের দামের এই মূল্যবৃদ্ধি প্রসঙ্গে সম্প্রতি অসমের বিজেপি নেতা ভবেশ কলিতা (Bhabesh Kalita) বলেছেন, ‘পেট্রোলের দাম যখন লিটার প্রতি ২০০ টাকা ছাড়িয়ে যাবে, তখন দুচাকার বাইকে ৩ জন চড়ার অনুমতি দেওয়া হবে। সরকারের থেকে অনুমতি নেওয়ার পর দ্বি-চাকার যানবাহনে ৩ জন বসার আসন তৈরি করা হবে’।

তবে এটা স্পষ্ট নয় যে নিজের এমন মন্তব্যের বিষয়ে কোন প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন কিনা ভবেশ কলিতা এবং নিজের বক্তব্যের অর্থ তিনি বুঝতে পেরেছেন কিনা।

Related Articles

Back to top button