আজই গ্রেফতার হতে পারেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল? মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির সমস্ত রাস্তা বন্ধ করে দিল পুলিশ

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ আজই গ্রেফতার হতে পারেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল (CM Arvind Kejriwal)। আবগারি নীতি সংক্রান্ত মামলায় এখনও পর্যন্ত তিনবার কেজরিওয়ালকে তলব করেছে ইডি। তবে বারংবারই তিনি তলব এড়িয়ে গিয়েছেন। গতকাল তৃতীয়বারের জন্য কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার সমন এড়িয়েছেন তিনি। এরই মধ্যে তার দলেরই এক আপ নেতার দাবি, আজই আবগারি দুর্নীতি মামলায় কেজরিওয়ালকে গ্রেফতার করতে পারে ইডি।

   

দিল্লির আপ পার্টির নেতা অতিশি, সৌরভ ভরদ্বাজ এবং জেসমিন শাহের আশঙ্কা এবার AAP সুপ্রিমোকে গ্রেফতার করতে পারে ইডি (ED)। শুধু তাই নয় বৃহস্পতিবার ইডি মুখ্যমন্ত্রীর দফতরেও তল্লাশি চালাতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তারা। ইতিমধ্যেই এই নিয়ে চিন্তায় আপের শীর্ষনেতারা পার্টি অফিসে জড়ো হওয়া শুরু করেছেন।

বুধবার রাতে সমাজ মাধ্যমে দিল্লির মন্ত্রী আতিশি লেখেন, “আমরা খবর পেয়েছি, বৃহস্পতিবার সকালে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের বাড়িতে ইডি তল্লাশি চালাবে৷ তাকে গ্রেফতারও করা হতে পারে ৷” আপ নেত্রীর দাবি, কেজরিওয়ালকে গ্রেফতারির সমস্ত পরিকল্পনা করে ফেলেছে কেন্দ্র সরকার। সেই মতই বন্দোবস্ত করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত ২ নভেম্বর এবং ২১ ডিসেম্বর দুবার ইডির তলব এড়িয়ে গিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। ২২ ডিসেম্বর ফের নোটিস পাঠানো হলেও সাড়া দেননি কেজরি। উল্টে আপ সুপ্রিমো তাকে সমনের বিষয়টি “অবৈধ” এবং “রাজনৈতিকভাবে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত” বলে অভিহিত করেছিলেন।

আরও পড়ুন: ১০ দিনের টাইট ডেডলাইন! প্রাথমিকের নিয়োগ মামলায় পর্ষদকে বিরাট নির্দেশ বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের

আবগারি দুর্নীতি মামলায় আগেই দিল্লির প্রাক্তন উপমুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়া এবং আপ সাংসদ সঞ্জয় সিংহ ইডির হাতে গ্রেফতার হয়েছেন। ইডির স্ক্যানারে রয়েছে আরেক আপ মন্ত্রী রাজকুমার আনন্দ। সম্প্রতি তার বাড়িতেও তল্লাশি চালানো হয়। এদিকে এবার খোদ মুখ্যমন্ত্রীকে গ্রেফতারির আশঙ্কায় সকাল থেকেই রাজধানীতে বাড়ছে তৎপরতা।

kejriwal

সূত্রের খবর, কেজরির বাসভবনগামী সমস্ত রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতেও কড়া নিরাপত্তা। প্রসঙ্গত, ইডি তলবে না যাওয়ার প্রেক্ষিতে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় এজেন্সিকে তিনি জানিয়েছেন, ২৭ জানুয়ারির এই মামলায় তিনি হাজিরা দিতে পারবেন না। কারণ আপাতত তিনি রাজ্যসভার নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত। এছাড়া ২৬ জানুয়ারি সাধারণতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠান নিয়েও তিনি ব্যস্ত রয়েছেন বলে ইডিকে চিঠিতে জানিয়েছেন।

সম্পর্কিত খবর