মুখ থুবড়ে পড়ল Airtel! কয়েক মাসেই হারাল লক্ষ-লক্ষ গ্রাহক, চমকে দেওয়া তথ্য TRAI’র

বাংলাহান্ট ডেস্ক : একটা সময় ভারতে দশের অধিক টেলিকম অপারেটর সক্রিয় ছিল। তবে জিওর আগমনের পর বহু টেলিকম অপারেটর নিজেদের ঝাঁপ বন্ধ করে দিয়েছে। আবার কিছু টেলিকম অপারেটর মার্জ হয়ে গেছে। এই অবস্থায় ফের একবার ভারতের টেলিকম শিল্পের জন্য একটি চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে সাম্প্রতিক উঠে আসা একটি তথ্য।

   

রিলায়েন্স জিওর আগমনের পর দেশের অধিকাংশ মোবাইল ব্যবহারকারী জিও কানেকশন ব্যবহার করতে শুরু করেন। এর ফলে অন্যান্য টেলিকম অপারেটরগুলি ক্রমাগত গ্রাহক সংখ্যা হারাতে থাকে। এই অবস্থায় জানা যাচ্ছে গত বছর অক্টোবর মাসে এয়ারটেল ১.২ মিলিয়ন সক্রিয় ব্যবহারকারী হারিয়েছে।

আরোও পড়ুন : জানুয়ারিতে জগন্নাথ দর্শনের ইচ্ছা? পুরীর উদ্দেশ্যে ৮টি স্পেশাল ট্রেন চালাবে রেল, আছে ৯,০০০ টিকিট

অপরদিকে ২০২৩ সালের অক্টোবর মাসে রিলায়েন্স জিও যোগ করতে পেরেছে ১.৮৪ মিলিয়ন গ্রাহক। সস্তায় ইন্টারনেট প্ল্যান, অত্যন্ত কম দামের জিও ভারত ৪জি হ্যান্ডসেট, বেটার কভারেজের জন্য মনে করা হচ্ছে বহু গ্রাহক বেছে নিয়েছেন রিলায়েন্স জিওকে। রিপোর্ট বলছে বহু মাস পর ভোডাফোন আইডিয়া ০.৪ মিলিয়ন গ্রাহক যুক্ত করতে পেরেছিল সেপ্টেম্বর মাসে।

airtel 84 days validity plans that come

তবে ভোডাফোন আইডিয়া তারপর হারিয়েছে ১.৪১ মিলিয়ন সক্রিয় গ্রাহক। ২০২৩ সালের অক্টোবর মাসে এয়ারটেলের সক্রিয় ব্যবহারকারীর সংখ্যা নেমে এসেছে ৩৭৪.৯৬ মিলিয়নে। সেই বছরই সেপ্টেম্বরে এই সংখ্যাটা ছিল ৩৭৬.১৫ মিলিয়ন। অন্যদিকে, রিলায়েন্স জিও ব্যবহারকারীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে পৌঁছেছে ৪২২.১১ মিলিয়নে।