ব্যারাকপুরে অর্জুন ‘ম্যাজিক’! ভোটের দিনই যা কাণ্ড ঘটালেন…, ‘হ্যাটস অফ’ শুভেন্দুর

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ উনিশের লোকসভা ভোটের সময় তেতে উঠেছিল ব্যারাকপুর কেন্দ্র। চব্বিশের নির্বাচনের সময় ফের একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে কিনা তা নিয়ে সংশয়ে ছিলেন অনেকে। তবে দেখা গেল, এবার মোটের ওপর শান্তিতেই ভোট হয়েছে সেখানে। বিক্ষিপ্ত কয়েকটি ঘটনা ছাড়া মোটের ওপর সুষ্ঠুভাবেই নির্বাচন হয়েছে ‘অর্জুন গড়ে’ (Arjun Singh)।

গত লোকসভা ভোটের (Lok Sabha Election) সময় ব্যারাকপুরে (Barrackpore) যে চিত্র দেখা গিয়েছিল, তার সঙ্গে এবারের কোনও মিলই ছিল না। হিংসা, অশান্তির তেমন কোনও খবর আসেনি সেখান থেকে। আর সেই কারণেই এবার নিজের জয়ের ব্যাপারে আরও বেশি আত্মবিশ্বাসী অর্জুন সিং। বিজেপি (BJP) প্রার্থীর দাবি, নিজের জয়ের বিষয়ে ২০০% নিশ্চিত তিনি।

এদিন আবার হলদিয়ায় দাঁড়িয়ে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী বলেন, প্রার্থীরা নির্বাচনের দিন কী করেন তা দেখতে চেয়েছিলেন সাধারণ মানুষ। বিজেপির স্পিরিট দেখিয়েছেন প্রত্যেক প্রার্থী। লকেট চট্টোপাধ্যায়, অর্জুন সিং, রথীন চক্রবর্তী, শান্তনু ঠাকুর সহ প্রত্যেক  প্রার্থীকে কুর্নিশ।

আরও পড়ুনঃ সঙ্গে অভিষেক! ভোট মিটতেই গুরু দায়িত্ব পেলেন ইউসুফ পাঠান, বুধবারই বিরাট চমক তৃণমূলের

অন্যদিকে সোমবার নির্বাচন শেষ হতেই সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ সাংবাদিক বৈঠকে দেখা যায় অর্জুনকে। বেশ ফুরফুরে মেজাজেই ছিলেন ব্যারাকপুরের বিজেপি প্রার্থী। ভোটের দিন সকাল থেকে লোকসভা কেন্দ্রের নানান প্রান্তে ছুটে বেরিয়েছেন তিনি। বৃষ্টিবাদল মাথায় নিয়ে কখনও বুথে এজেন্ট বসিয়েছেন, কখনও আবার নিজ ‘গড়ে’ই শুনতে হয়েছে গো ব্যাক স্লোগান।

বিজেপি নেতা কৌস্তভ বাগচির গাড়িও ভাঙচুর করা হয়েছে। যদিও অর্জুন এসবকে বিশেষ পাত্তা দিতে নারাজ। বিজেপি নেতার কথায়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তাঁর গুন্ডাদের বিরুদ্ধে লড়তে নামলে গাড়ি ভাঙবে না, গাড়িতে ইট-পাথর পড়বে না, এমনটা হয় না। তবে সবকিছুর পাল্টা উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করতে হবে।

barrackpore bjp candidate arjun singh

অর্জুনের দাবি, এবার অবাধ, শান্তিপূর্ণ নির্বাচন করার পরিকল্পনা ছিল তাঁদের। আর ঠিক তেমনটাই করতে পেরেছেন। পদ্ম প্রার্থী বলেন, কারা গুণ্ডামি করে সেটা ব্যারাকপুরের মানুষের সামনে প্রমাণ করাটা আমার কাজ ছিল। মুখ্যমন্ত্রী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, তিনি এবং তাঁর পুলিশ গুণ্ডাদের পোষে। হিংসা, গুণ্ডামি হল ওঁদের সংস্কৃতি।

অন্যদিকে গো ব্যাক স্লোগান দেওয়া প্রসঙ্গে অর্জুন বলেন, এতে কী যায় আসে? গো ব্যাক স্লোগান দিতে পারে, গালাগাল করতে পারে। এটা করে ওঁরা ওঁদের নেতাদের দেখাতে চেয়েছে। এই রকম যে হবে সেটা জানতামই। ১.৫ লক্ষের কাছাকাছি ভোটে জয়ী হবো। শুধু তাই নয়, তৃণমূল প্রার্থী পার্থ ভৌমিকের ‘গড়’ নৈহাটি বিধানসভাতেই লিড পাবেন বলে আশাবাদী অর্জুন। এমনকি আমডাঙায় ২ ভোটে হলেও জিতবেন বলে দাবি করেন বিজেপি নেতা। তিনি বলেন, ওঁদের একজন গুণ্ডা গোটা দিনটা রাস্তায় দাঁড়িয়ে কাটিয়ে দিল। তবে কিছুই করতে পারেনি।

Sneha Paul
Sneha Paul

স্নেহা পাল, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরের পর সাংবাদিকতা শুরু। বিগত প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর