টাইমলাইনবিনোদন

আইনজীবী বদলেও মিলল না জামিন, বিস্কুট-জল খেয়েই জেল জীবন কাটাতে হবে আরিয়ানকে

বাংলাহান্ট ডেস্ক: এখনি রেহাই নেই আরিয়ান খানের (aryan khan)। সেই ২ রা অক্টোবর মাদক কাণ্ডে ক্রুজ পার্টি থেকে আটক করা হয়েছিল শাহরুখ খানের বড় ছেলেকে। তারপর টানা ১৬ ঘন্টা জেরা, মাদক গ্রহণের কথা স্বীকার আর তারপরেই NCB র হাতে গ্রেফতার হন আরিয়ান। আপাতত আর্থার রোড জেলের একটি ঘরই তাঁর অস্থায়ী আস্তানা।

বৃহস্পতিবার একটা সুযোগ ছিল আরিয়ানের জামিন পাওয়ার। কিন্তু এদিনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি আদালতে। তাই আগামী ২০ অক্টোবর পর্যন্ত জেলেই কাটাতে হবে কিং খান পুত্রকে। সেদিনই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে আরিয়ান সহ মাদক কাণ্ডে ধৃত অন‍্য অভিযুক্তরা জামিন পাবেন কিনা।


জামিনের দিন ক্রমেই পেছোতে থাকায় নাকি অধৈর্য হয়ে পড়ছেন আরিয়ান। জেলে অন‍্যান‍্য কয়েদিদের মতোই থাকতে হচ্ছে তাঁকে। বিশেষ সুবিধা তো দূর, জেলের সাধারন খাবারই দেওয়া হচ্ছে তাঁকে। জানা গিয়েছিল অন‍্য কয়েদিদের মতো ভোর ছটায় ঘুম থেকে তুলে দেওয়া হবে আরিয়ানকে। তারপর সকাল ৭ টায় সবাইকে দেওয়া হবে ব্রেকফাস্ট।

বেলা ১১ টার সময় দেওয়া হবে দুপুরের খাবার। জেলের মেনুতে থাকবে ভাত ডাল আর রুটি। বাকিদের জন‍্য যা খাবার সেটাই খেতে হবে আরিয়ানকেও। জেলের মধ‍্যে বাইরের খাবার ঢোকানোর অনুমতি নেই।

বিকেলে জেলের মধ‍্যেই কিছুক্ষণ হাঁটাহাঁটির অনুমতি দেওয়া হয় আরিয়ানকে। কিন্তু এখন আইসোলেশনে থাকার দরুন সেই অনুমতি মিলবে না কিং খান পুত্রের। রাতের খাবার দেওয়া হবে সন্ধ‍্যা ৬ টায়। এমনকি বেশি খাবার চাইলে মানি অর্ডার করে সেই টাকা দিয়ে খাবার কিনতে হবে আরিয়ানকে। কিন্তু এখন শোনা যাচ্ছে সকাল বিকেল নাকি শুধু বিস্কুট আর জল খেয়েই থাকছেন কিং খান পুত্র।

সম্প্রতি সতীশ মানশিন্ডেকে সরিয়ে শাহরুখ নিয়োগ করেন আইনজীবী অমিত দেশাইকে। এর আগে হিট অ্যান্ড রান মামলায় সলমন খানের আইনজীবী ছিলেন তিনি। গত ১১ অক্টোবর আরিয়ানের জন‍্য জামিনের আবেদন করেন তিনি। কিন্তু বিফল হতে হয় অমিত দেশাইকেও। পরপর দুবার খালি হাতেই ফিরতে হল শাহরুখ পুত্রকে।

Related Articles

Back to top button