গণনা শেষের আগেই পরাজয় বরণ বাম প্রার্থী অশোক ভট্টাচার্যের! বললেন ‘গোটা রাজ্যে বামেদের বিপর্যয় হয়েছে’

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ একুশের হাইভোল্টেজ লড়াইয়ের অন্যতম একটি কেন্দ্র শিলিগুড়ি। সেখানে গণনা শুরুর প্রাথমিক ট্রেন্ডে পোস্টাল ব্যালটে এগিয়ে ছিলেন বাম প্রার্থী তথা প্রাক্তন মন্ত্রী অশোক ভট্টাচার্য (Ashok Bhattacharya)। প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছিল গোটা রাজ্যে বাম যখন ক্ষয়িষ্ণু, তখন শিলিগুড়িতে কি নিজেদের গড় রক্ষা করতে পারবে বাম শিবির! জবাব মিলতে শুরু করল বেলা গড়াতেই।

প্রথম স্থান থেকে একেবারে তৃতীয় স্থানে নেমে গেলেন অশোক ভট্টাচার্য। প্রথম স্থানে রয়েছেন তাঁরই শিষ্য শঙ্কর ঘোষ (Shankar Ghosh)। একদা তাঁর ছায়াসঙ্গী হিসেবে পরিচিত ছিলেন শঙ্কর ঘোষ। কিন্তু ভোটের আগেই দলবদল করে গেরুয়া শিবিরে নাম লেখান শঙ্কর ঘোষ। দলে (BJP) যোগ দিয়েই প্রার্থী পদ শিলিগুড়ি আসনে। শিষ্যের কাছে গুরু পিছিয়ে ২৫ হাজার ভোটে। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন তৃণমূলের ওমপ্রকাশ মিশ্র।

নিজের এমন ধরাশয়ী অবস্থা দেখে বাম প্রার্থী অশোক ভট্টাচার্য গণনার আগেই একরকম পরাজয় স্বীকার করে নিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘গোটা রাজ্যে বামেদের বিপর্যয় হয়েছে’। তারপরই তিনি জানান, ‘এনিয়ে দলীয় স্তরে পর্যালোচনা হবে’। জানিয়ে দি, গোটা রাজ্যে এখন মাত্র একটি আসনে এগিয়ে সংযুক্ত মোর্চা।

দুপুর ১২টা পর্যন্ত পাওয়া আপডেট থেকে তৃণমূলেরই মসনদে প্রত্যাবর্তনের ইঙ্গিত মিলছে। ২০৩ আসনে এগিয়ে শাসকদল তৃণমূল। বিজেপি এগিয়ে মাত্র ৯২টি আসনে। তবে একুশের নির্বাচনের সবচেয়ে হাইভোল্টেজ নির্বাচনী কেন্দ্র নন্দীগ্রাম (Nandigram), যেখানে তৃণমূল প্রার্থী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এখনও পর্যন্ত পিছিয়ে আছেন বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারীর কাছে।

সম্পর্কিত খবর