টাইমলাইনফুটবলখেলা

হাড্ডাহাড্ডি ম্যাচে জনি কাউকোর জোড়া গোলে নৈহাটি গোল্ড কাপে মহামেডানকে হারালো এটিকে মোহনবাগান

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: আজ নৈহাটি গোল্ড কাপের ম্যাচে মরশুমের প্রথম মিনি ডার্বিতে মুখোমুখি হয়েছিল মহামেডান এবং এটিকে মোহনবাগান। নৈহাটি বঙ্কিমাঞ্জলি স্টেডিয়ামে ম্যাচটি আয়োজন করা হয়েছিল। ম্যাচ কিরে তুমুল উত্তেজনা তৈরী হয়েছিলো ভক্তদের মধ্যে। নির্দিষ্ট সময়ে দলে দলে সমর্থকরা ভিড় জমান স্টেডিয়ামের কাছাকাছি। নৈহাটি বঙ্কিমাঞ্জলি স্টেডিয়ামে দর্শক আসন ১০,০০০। কিন্তু নিরাপত্তার স্বার্থে মাত্র ৭,০০০ টিকিট ছাড়া হয়েছিল। অনেকেই টিকিট পাননি কিন্তু স্টেডিয়ামের সামনে উপস্থিত ছিলেন নিজের প্রিয় তারকাদের দেখার জন্য।

প্রায় তিন বছর পর মুখোমুখি হয়েছিল দুই পক্ষ। প্রদর্শনী ম্যাচ হলেও ভক্তরা অত্যন্ত উৎসাহের সঙ্গে মাঠে উপস্থিত হয়েছিলেন। এমনকি নিজের বাবার মৃতদেহ শ্মশানে পুড়িয়েও প্রিয় দলের টানে খেলা দেখতে উপস্থিত ছিলেন এক মোহনবাগান ভক্ত এমনটা দেখা গেছে। তবে যেহেতু প্রদর্শনী ম্যাচ তাই প্রথমেই সেরা দল নামাননি এটিকে মোহনবাগান কোচ জুয়ান ফার্নান্ডো। প্রথমে তরুণদের সুযোগ পেলেও পরে মোট ২০ জন ফুটবলারকে মাঠে নামে পরীক্ষা করে নিলেন তিনি। একই কাজ করলেন দুদিন আগে শহরে পা রাখা মহামেডান কোচ আন্দ্রে চেরনিশভ। তিনি মোট ১৮ জন ফুটবলারকে দেখে নিলেন।

ম্যাচে উত্তেজনার কমতি ছিল না। বেশকিছু রাফ ট্যাকেলও দেখা গেছে। ম্যাচের প্রথমার্ধে অভিষেক হালদারের কোলে এগিয়ে গিয়েছিল মহামেডান। পেনাল্টি থেকে গোল করতে ভুল করেননি বঙ্গ ফুটবলার। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে জনি কাউকো, পোগবারা মাঠে আসার পর খেলা ঘুরে যায়। প্রথম পেনাল্টি থেকে এবং পরে আরেকটি গোল করে ২-১ ফলে এতিকদ মোহনবাগানকে ম্যাচ জিতিয়ে দেন তারকা ফুটবলার জনি কাউকো।

মোহনবাগান কোচ জুয়ান ফার্নান্দোর উদ্দেশ্য ছিল বেশ কিছুদিন অনুশীলনের পর দল কতটা সেট হয়েছে তা দেখে নেওয়া। ডুরান্ডের আগে এই প্রদর্শনী ম্যাচে বেশি ঝুঁকি নিতে রাজি ছিলেন না তিনি। কিন্তু ছোট স্টেডিয়ামেও দর্শকদের উন্মাদনা দেখে অবাক স্প্যানিশ কোচ। এভাবেই পুরো মরশুম তাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য ভক্তদের আবেদন জানিয়েছেন তিনি।

Related Articles

Back to top button