ভারত নয়, বিশ্বকাপ জয়ের জন্য এই দল ফেভারিট! BCCI ও রোহিতকে সতর্ক করলেন আকাশ চোপড়া

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্কঃ মাঝে আর মাত্র তিনটে দিন। তারপরেই ভারতের মাটিতে আরম্ভ হয়ে যাবে ওডিআই বিশ্বকাপ (2023 ODI World Cup) জয়ের লড়াই। আর এই লড়াইয়ের যে ভারতীয় দল (Indian Cricket Team) ফেভারিট তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই। ভারতের তাই প্রত্যেক তারকা ক্রিকেটারই এই মুহূর্তে ভালো ছন্দে রয়েছেন। তাই রোহিত শর্মাদের (Rohit Sharma) উপর প্রত্যাশার চাপ থাকবে অনেক বেশি। কিন্তু বাকি দলগুলি এত সহজে হাল ছেড়ে দেবে না বলে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে আগে থেকেই সতর্ক হয়ে বিশ্বকাপের স্কোয়াড বাছার পরামর্শ দিয়েছিলেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ ও প্রাক্তন ভারতীয় ওপেনার আকাশ চোপড়া (Aakash Chopra)।

   

একসময় ভারতীয় ক্রিকেট দলের হয়ে টেস্ট ফরম্যাটে ওপেন করার সুযোগ পেয়েছিলেন আকাশ। বীরেন্দ্র সেওবাগের সঙ্গে জুটি বেঁধে বেশ কয়েকটি ম্যাচে ওপেন করেছিলেন তিনি। তবে দু একটি ভদ্রস্থ ইনিংস খেললেও বিশাল বড় মাপের কোনও প্রভাব ফেলতে পারেননি তিনি। ফলে ধীরে ধীরে জাতীয় দল থেকে হারিয়ে যান তিনি। তবে পরবর্তীকালে ধারাভাষ্যকার এবং ক্রিকেট বিশ্লেষক হিসেবে তিনি সুনাম অর্জন করেছেন।

তিনি সম্প্রতি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড এবং রোহিত শর্মাকে সতর্ক করে দিয়েছেন একটি বিশেষ দল নিয়ে। ভারতের মাটিতে ভারত যে ফেভারিট তা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই। কিন্তু আকাশ চোপড়ার মতে ওই দলটির ক্ষমতা রয়েছে নিজেদের স্কোয়াডের গভীরতার সুযোগকে কাজে লাগিয়ে বাকি দলগুলিকে বিপদে ফেলার ক্ষমতা রাখে।

australia cricket team

 

এখানে তিনি বলতে চাইছেন অস্ট্রেলিয়া দলের কথা। ভারতের মাটিতেই তারা চলতি বছরে পূর্ণশক্তির দল নিয়ে এসে ওডিআই সিরিজ জিতে ফিরেছে। দলে এমন অনেক তারকা রয়েছেন যারা ফাস্ট বোলিং এর পাশাপাশি স্পিনের বিরুদ্ধেও সমান স্বাচ্ছন্দ‍্যবোধ করেন। তাদের হাতে রয়েছে একাধিক অলরাউন্ডার। ফলে তাদের ব্যাটিং এবং বোলিং দুই বিভাগে গভীরতা অনেক বেশি।

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপে সুযোগ পেয়েও বিপত্তি! আচমকাই অবসরের ইঙ্গিত দিয়ে BCCI-কে চমকে দিলেন এই তারকা

আকাশ চোপড়া তাই রোহিত শর্মাদের সতর্ক করে বলেছেন যে অস্ট্রেলিয়াকে হালকা ভাবে নেওয়ার কোন উপায় নেই। তাদের দলে একাধিক ম্যাচ উইনার রয়েছেন। সেই বিষয়টা সম্পর্কে তাদের খুব ভালো আন্দাজ রয়েছে বলে আকাশ মনে করেন। ভারতের মাটিতে আয়োজিত হলেও তাদের দলে এই পরিবেশ পরিস্থিতিতে সফল হওয়ার রসদ রয়েছে বলে প্রাক্তন ভারতীয় ওখানে জানিয়েছেন।

 

সম্পর্কিত খবর