টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচন

ভোটের আগে বড়সড় রদবদল বিজেপিতে, শোরগোল পড়ল গেরুয়া শিবিরে

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ রাজ্যে মিটেছে চার দফার ভোট পর্ব। বাকি আরও চার দফা। সেই মত ভোট পঞ্চমীকে পাখির চোখ করে নির্বাচনী প্রচারে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বরা। লাগাতার দিল্লি থেকে উড়ে এসে বাংলার সর্বত্র জনসভা করে চলেছেন মোদী-শাহ-নাড্ডারা। সেই মত আজ অর্থাৎ মঙ্গলবার উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুড়ে রোড শো করতে আসেন অমিত শাহ (Amit Shah)। তার আগেই ওই জেলায় ঘটে গেল বড়সড় রদবদল।

উত্তর দিনাজপুর (Uttar Dinajpur) জেলার সভাপতি বদলের নির্দেশ এসে পৌঁছায় রাজ্য নেতৃত্বের তরফে। এহেন সিদ্ধান্তে ভোটের আট দিন আগেই শোরগোল পড়ে যায় গোটা উত্তর দিনাজপুরে। ওই জেলার বিজেপি (BJP) সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ীর পরিবর্তে নতুন সভাপতি পদে নিযুক্ত করা হয় রায়গঞ্জের সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দেবশ্ৰী চৌধুরীর ঘনিষ্ঠ বাসুদেব সরকার। এরপরই জেলা গেরুয়া শিবিরের অন্দরে চাপা গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

ভোটের ৯ দিন আগে সভাপতি বদল বিজেপির, কারণ কী? | TV9 Bangla News

উল্লেখ্য, গতকাল অর্থাৎ সোমবার বিকেলে উত্তর দিনাজপুরের হেমতাবাদ বিধানসভায় পা রেখেছিলেন অমিত শাহ। মহারাজা হাট লাগোয়া ময়দানে হয় তাঁর জনসভা। সেখানে জেলা সভাপতি হিসাবে দেখা গিয়েছিল বিশ্বজিৎ লাহিড়ীর । তারপরই ওই জেলায় অমিত শাহের রোড শো শুরুর আগের মুহূর্তেই জেলা সভাপতি পদে রদবদল যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

উল্লেখ্য, জেলা নেতৃত্বে এমন রদবদলে তুমুল চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে জেলা জুড়ে। যেমনটা হয়েছিল ওই জেলার বিধানসভা আসন গুলিতে প্রার্থী তালিকা ঘোষিত হওয়ার পর। সেখানে জ্বলে ছিল সাংসদের  ছবি, ভাঙা হয়েছিল বিজেপির দফতর। শোনা যাচ্ছে, ওই বিক্ষোভের পিছনে সদ্য জেলা সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া বিশ্বজিৎ লাহিড়ীর হাত ছিল বলে মনে করছে গেরুয়া শিবিরের রাজ্য নেতৃত্বরা।

Back to top button