fbpx
টাইমলাইনভারত

সাংসদ স্মৃতি ইরানীর নিখোঁজের পোস্টারকে কেন্দ্র করে শুরু বিজেপি কংগ্রেসের ট্যুইটার লড়াই

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ করোনার সংকটের মধ্যেই এবার বিজেপি (BJP) কংগ্রেসের (Indian National Congress) দ্বন্দ প্রকাশ্যে চলে এল। স্মৃতি ইরানি (Smriti Irani) বনাম সোনিয়া গান্ধী। উত্তরপ্রদেশের আমেঠিতে কংগ্রেসের শক্তিশালী সদস্য রাহুল গান্ধীকে পরাজিত করে ইতিহাস তৈরি করেছিলেন স্মৃতি ইরানি। কিন্তু বর্তমান সময়ে স্যোশাল মিডিয়ায় তাঁর মিথ্যে নিখোঁজের পোস্টার ভাইরাল করছে কংগ্রেস, এমনটা অভিযোগ উঠেছে।

বিস্ফোরক মন্তব্য করে মহিলা কংগ্রেস
বর্তমান সংকটের পরিস্থিতিতে রাজ্য সরকার এবং কেন্দ্র সরকার মিলিতভাবে এই করোনা মহামারির বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। লকডাউনের ৫ম দফাতেও যেন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণের মাত্রা। পরিস্থিতি দিনে দিনে খারাপ হয়ে যাচ্ছে। এই সংকটের মধ্যে আবার করোনার সঙ্গে তালমিলিয়ে তীব্র হচ্ছে রাজনৈতিক তর্জাও। এরই মধ্যে আবার মহিলা কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এক বিস্ফোরক টুইট করা হয়।

ট্যুইটের বিষয়
এই বিতর্কিত ট্যুইটের বিষয় বস্তু হল, ‘আমেঠি তাঁর নিখোঁজ হয়ে যাওয়া সাংসদ স্মৃতি ইরানীকে খুঁজছে’। এই ট্যুইট স্যোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই, কংগ্রেসকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করতে শুরু করে বিজেপি নেত্রী।

পাল্টা জবাব দেন স্মৃতি ইরানী
তিনি এই পোস্টের জবাবে মহিলা কংগ্রেসকে লেখেন, ‘আপনি যে আমায় এতো ভালোবাসেন, তা আমার জানা ছিল না। চলুন এবার আপনাকেও কিছু হিসাব দেওয়া যাক। আমার কাছে ৮ মাসে ১০ বারে মাত্র ১৪ দিনের হিসাব রয়েছে। এবার আপনি আমাকে বলুন তো সোনিয়া জী ওখানে ঠিক কতবার গিয়েছেন?’

নিজের অপমানের বদলা নিতে কড়া ভাষায় প্রতিক্রিয়া দেন স্মৃতি ইরানী। তিনি কংগ্রেসকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করে বলেন, “এখনও অবধি প্রায় ২২১৫০ জন নাগরিককে বাসে এবং ৮৩২২ জনকে ট্রেনে করে সম্পূর্ণ আইন মেনে আমেঠি জেলায় ফিরে আনা হয়েছে। আমি প্রতিটি পরিবাররে ব্যক্তিদের নাম বলে দিতে পারব। সোনিয়া জী কি এরকম কোন হিসাব দিতে পারবেন? আমি এই সময়ের মধ্যে কালেক্টর, আমেঠি, সুলতানপুর, রায় বেরলির সঙ্গে যোগাযোগ করে প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনার সুযোগ সুবিধা পৌঁছে দিয়েছি আমেঠিবাসির কাছে। কিন্তু সোনিয়া জী কতবার ওই অঞ্চলে গিয়েছেন?”

Back to top button
Close
Close