দলবদলানোর জন্যই কী অপরাধী! শুভেন্দুর রক্ষাকবচ মামলায় আদালতে প্রশ্নের মুখে রাজ্য

বাংলাহান্ট ডেস্ক : একের পর এক মামলায় জর্জরিত বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। রক্ষাকবচ চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন তিনি। সেই মামলার শুনানিতেই এবার বিচারপতির প্রশ্নের মুখে রাজ্য। বুধবার বিচারপতি শুভেন্দু অধিকারীর দল বদলের আগে ও পরের মামলার সংখ্যা নিয়ে বলতে গিয়ে বলেন, “দল বদলের পরেই কি শুভেন্দু অধিকারী অপরাধী!”

কলকাতা হাইকোর্টে এই মামলাটি উঠেছিল বিচারপতি জয় সেনগুপ্তর এজলাসে। বুধবার রাজ্যের আইনজীবীকে উদ্দেশ্য করে বিচারপতি জানতে চান, “শুভেন্দু অধিকারী কি দলবদলের আগে অপরাধ করেননি?” বিচারপতির প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে রাজ্যের আইনজীবী বলেন, “হতে পারে সেই সময় শুভেন্দু শৃঙ্খলাপরায়ণ ছিলেন।”

আরোও পড়ুন : ”নেতাজির স্বপ্ন পূরণে ব্যর্থ BJP!” ভারাক্রান্ত মনে গেরুয়া শিবির ত্যাগ সুভাষচন্দ্রের প্রপৌত্র চন্দ্র বসুর

এরপর বিচারপতি বলেন, “এমনও তো হতে পারে সেই সময় রাজ্য শুভেন্দুকে আড়াল করছিল।” যে সময় শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূলে ছিলেন সেই সময় তার বিরুদ্ধে রয়েছে মাত্র একটি মামলা। তৃণমূল ছেড়ে শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগদান করেন ২০২০ সালের ১৯শে ডিসেম্বর।

আরোও পড়ুন : ৪৫ মহিলাকে এইভাবে ধর্ষণ, নৃশংস কাণ্ড স্কুল শিক্ষকের! শেষমেশ পড়ল ধরা, এবার ঠাঁই হল গারদে

আদালতের পরিসংখ্যান অনুযায়ী তারপর থেকে শুভেন্দুর (Suvendu Adhikari) বিরুদ্ধে দায়ের করা হয়েছে প্রায় ২৭ টি মামলা। শুভেন্দু অধিকারীর আইনজীবী আদালতে বলেন, পুলিশ দিয়ে ভুয়ো মামলায় পদে পদে ফাঁসানো হচ্ছে তার মক্কেলকে। এরপরেই রীতিমতো শোরগোল পড়ে যায় আদালত চত্বরে।

suvendu

মামলার পরিসংখ্যান তুলে আজ বিচারপতি রাজ্যের আইনজীবীর কাছে একাধিক প্রশ্ন রাখেন। একজনের বিরুদ্ধে কীভাবে রাতারাতি এত মামলা হতে পারে সেই নিয়ে প্রশ্ন করেন বিচারপতি। এমনকি আজ এজ্লাসে বিচারপতি সন্দেহ প্রকাশ করে বলেন হয়ত শাসক দলে থাকার সময় শুভেন্দুকে রাজ্য আড়াল করছিল। এই মামলার আগামী শুনানি রয়েছে ১৩ই সেপ্টেম্বর।