টাইমলাইনভারত

সবাই হাত তুলে বললেন ‘বন্দেমাতরম” চুপচাপ বসে ছিলেন কেজরীবাল! ভিডিও ভাইরাল

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের মধ্যে আরও একবার চর্চার কেন্দ্রবিন্দু হলেন দিল্লীর মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবাল (Arvind Kejriwal)। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভিডিও (Video) খুব ভাইরাল (Viral Video) হচ্ছে। উল্লেখ্য, দিল্লীর লালকেল্লা থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভাষণ শেষ করে যখন হাত উঠিয়ে ‘ভারত মাতা কি জয়” আর ‘বন্দেমাতরম” স্লোগান দেন, তখন অরবিন্দ কেজরীবাল হাত জড় করে বসে ছিলেন। কিন্তু ওনার আশেপাশে বসে থাকা সবাই হাত উঠিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে স্লোগান দেন। এবার অরবিন্দ কেজরীবালের এহেন কাজে রেগে লাল বিজেপি।

প্রসঙ্গত, দিল্লীতে স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে ভাষণ শেষ করার আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সবাইকে আবেদন করে বলেন যে, তাঁরা যেন দুই হাত তুলে ‘ভারত মাতা কি জয়” আর ‘বন্দেমাতরম” স্লোগান দেন। সেই সময় সেখানে উপস্থিত সমস্ত অতিথি নিজেদের হাত তুলে বন্দেমাতরম স্লোগান দিলেও মুখ্যমন্ত্রী কেজরীবাল নীরব দর্শকের মতো বসে থাকেন। আর এবার এটা নিয়েই বিজেপির কেজরীবালকে আক্রমণ করা শুরু করেছে।

দিল্লী বিজেপির মুখপাত্র তেজিন্দর বজ্ঞা ট্যুইট করে লেখেন, ‘অরবিন্দ কেজরীবাল যদি বন্দেমাতরমের স্লোগান দেয়, তাহলে কি ওনার ভোট ব্যাংক ক্ষুব্ধ হবে? বাটলা সন্ত্রাসবাদীদের জন্য তো হাত উথেছিলে, সেনার কাছ থেকে প্রমাণ চাওয়ার সময়েও তো আপনি তাড়াতাড়ি হাত উথিয়েছিলেন, তাহলে আজ কি এমন রোগ হল আপনার যে, বন্দেমাতরম ধ্বনিতে হাত তুললেন না?”

বজ্ঞা বলেন, নির্বাচনের সময় কেজরীবাল পরিস্কার বলেছিলেন যে, মুসলিমরা আমকে ভোট দিন, তাহলে আজ এই কাজ কি ওনার ভোট ব্যাংককে খুশি করার জন্যই করা হয়েছে? উনি বলেন, বন্দে মাতরমের ধ্বনি বিজেপি অথবা কোন দলের না, কেজরীবালের উচিৎ ছিল হাত তোলা।

Back to top button
Close