টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

মহারাষ্ট্রের পরিস্থিতি নিয়ে সরব হলেন অর্জুন সিং, শুভেন্দুকেও বিঁধলেন সদ্য প্রাক্তন বিজেপি নেতা

বাংলাহান্ট ডেস্ক : অনেক দিন পর তৃণমূলের হয়ে কথা বললেন তিনি। বিস্ফোরক মন্তব্যে বিজেপিকে বিঁধলেন সদ্য গেরুয়া শিবির ছেড়ে আসা অর্জুন সিং। সরাসরি কোনও রাজ্যের দখল নিতে পারছে না ওরা। তাই, ঘুরপথে মহারাষ্ট্র দখল করার চেষ্টা করছে বিজেপি।’ মহারাষ্ট্রের টালমাটাল রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে পদ্ম শিবিরকে তোপ দাগলেন ব‍্যারাকপুরের সাংসদ। শুক্রবার উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলা পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসে বারাসতের রবীন্দ্র ভবনে এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন অর্জুন। সেখানেই মহারাষ্ট্রের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে বিজেপিকে আক্রমণ করেন তিনি।

রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর দিকেও এদিন চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন অর্জুন সিং । সদ্য প্রাক্তন বিজেপি নেতা বলেন, ‘ক্ষমতা থাকলে উনি ব‍্যারাকপুর লোকসভা থেকে নির্বাচনে লড়াই করে দেখান । তাহলে বুঝব, কত ধানে কত চাল।’ প্রসঙ্গত, ব‍্যারাকপুরের সাংগঠনিক দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকেই অর্জুনের এলাকাকে বিশেষভাবে নজর দেওয়া শুরু করেছেন শুভেন্দু। এমনকি বেশ কয়েকবার সেখানে গিয়ে মিটিং, মিছিলও করে এসেছেন তিনি। নিহত বিজেপি নেতা মনীশ শুক্লার পরিবারের সঙ্গেও দেখা করেন শুভেন্দু। তাঁর খুনের ঘটনায় সিবিআই তদন্তের দাবিতেও তুলেছেন তিনি।

এই বিষয়ে এদিন অর্জুন সি বলেন, ‘বিজেপিতে থাকাকালীন এই নিয়ে অনেকবার সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়েছি আমি । তখন কেউ আমার কথা পাত্তাও দেয়নি। সিবিআই তদন্তের আপিলও করেছিলাম কোর্টে। এখন আর এসব দাবি করে কী হবে? সিআইডি তো তদন্ত করছে । পুলিশ ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতারও করেছে। এখন কেউ জামিন পেয়ে যদি আমাকে নমস্কার করতে আসে, আমি তো তাকে আর আমি বাধা দিতে পারি না !’

রাজ্যে বিজেপি’র বর্তমান সংগঠন কি ভেঙে পরেছে? এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘আমি তো আগেই বলেছিলাম, এ রাজ্যে বিজেপির কোনও সাংগঠনিক ক্ষমতাই নেই। যারা পঞ্চায়েত-পৌরসভা নির্বাচনেই লড়াই করতে পারে না, তারা ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচনে কীভাবে লড়াই করবে ? এখানে বিজেপি শূন্য পাবে৷’ দলবদল করলেও অর্জুন সিং-এর যে সুর বদল হয়নি তা বেশ ভালোই বোঝা যাচ্ছে এইসব মন্তব্যে।

Related Articles

Back to top button