টাইমলাইনবিনোদন

সোনু সূদ ‘স্বভাবেই অপরাধী’, বেআইনি নির্মাণ মামলায় ‘গরিবের মসিহা’র বিরুদ্ধে অভিযোগ BMCর

বাংলাহান্ট ডেস্ক: সোনু সূদের (sonu sood) বিরুদ্ধে ফের বিষ্ফোরক অভিযোগ বৃহন্মুম্বই পুরসভার (BMC)। সোনু নাকি ‘স্বভাবেই অপরাধী’। এটাই প্রথম নয়, এর আগেই বেআইনি নির্মাণ কাজ চালিয়েছেন তিনি। এর জন‍্য নাকি সোনুর আবাসনের কিছু অংশ ভাঙাও হয়েছিল। বম্বে হাই কোর্টে হলফনামা জমা দিয়ে এমনটাই জানিয়েছে BMC।

সম্প্রতি BMCকে পালটা চ‍্যালেঞ্জ জানিয়ে বম্বে হাইকোর্টে আবেদনপত্র দাখিল করেছিলেন সোনু। সেই পিটিশনের জবাবে হলফনামা দাখিল করেছে BMC। হলফনামায় দাবি করা হয়েছে, সোনু সূদ স্বভাবেই অপরাধী। অবৈধ নির্মাণ করে তার বাণিজ‍্যিক লাভ করতে চান তিনি। সেই কারণেই ভেঙে দেওয়া অংশে আবার নির্মাণ কাজ করে আবাসনটিকে হোটেলে পরিণত করতে চান। এটা পুরোটাই লাইসেন্স ডিপার্টমেন্টের অনুমতি ছাড়াই করেছেন তিনি।


সম্প্রতি ‘মহারাষ্ট্র রিজিয়ন অ্যান্ড টাউন প্ল‍্যানিং অ্যাক্ট’ (Maharashtra Region and Town Planning Act) এর আওতায় সোনুর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে BMC। অনুমতি ছাড়াই জুহুর একটি ছ তলা আবাসনের গঠন পরিবর্তন, বাড়ানো ও বদলানোর অভিযোগ আনা হয় অভিনেতার বিরুদ্ধে।

৪ জানুয়ারি সোমবার জুহুর পুলিস স্টেশনে সোনু সূদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে BMC। অভিযোগে বলা হয় অনুমতি ছাড়াই এ বি নায়ার রোডের শক্তি অ্যাপার্টমেন্টটি হোটেলে পরিণত করেছেন সোনু। শুধু তাই নয়, আবাসনটি সোনু নিজের পরিকল্পনা মতো আরো বাড়িয়েছেন বলেও অভিযোগ করা হয় BMCর তরফে। এর জন‍্য অভিনেতা প্রশাসনের কাছে কোনো অনুমতি নেননি।

BMC আরো জানায়, এই প্রসঙ্গে তারা নোটিস পাঠিয়েছিল সোনু সূদকে। কিন্তু তিনি পাত্তাও দেননি। বেআইনি নির্মাণ তিনি জারি রাখেন বলে অভিযোগ করে BMC। এরপরেই তারা বাধ‍্য হয় পুলিসে অভিযোগ দায়ের করতে।

BMCর নোটিসকে পালটা চ‍্যালেঞ্জ জানিয়ে বম্বে হাইকোর্টে আবেদনপত্র দাখিল করেন সোনু। তাঁর দাবি, তিনি BMCর কাছ থেকে অনুমতি চেয়েছিলেন। কিন্তু করোনা আবহে এখনো মেলেনি সেই অনুমতি। লকডাউনের সময় করোনা যোদ্ধাদের জন‍্যই ওই হোটেল বানিয়েছিলেন সোনু। অনুমতি না মিললে ফের হোটেলটিকে আবাসনে রূপান্তরিত করতে রাজি অভিনেতা।

Back to top button