টাইমলাইনবিনোদন

হায়দ্রাবাদ কাণ্ডে উত্তাল দেশ, পাশে দাঁড়াল বলিউড

বাংলাহান্ট ডেস্ক:  সালটা ২০১২, ১৬ ডিসেম্বর দিল্লিতে এক পাশবিক অত্যাচারের সাক্ষী থেকেছিল গোটা দেশ। দীর্ঘ ১৪ দিন লড়াইয়ের শেষ হয় ৩০ ডিসেম্বর। মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে প্যারামেডিকাল ছাত্রী ‘নির্ভয়া’। এবার ফিরে আসুন বর্তমানে। ২০১৯-এর ২৭ নভেম্বর একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি। বদলেছে শুধু নির্যাতিতার নাম, পেশা, নির্যাতকদের নাম। নির্ভয়ার মতো হায়দ্রাবাদের প্রিয়াঙ্কা রেড্ডিকেও বাঁচাতে পারেনি দেশবাসী। গোটা দেশ এখন সরব হয়েছে ধর্ষণের প্রতিবাদে। তাঁদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন বলিউড তারকারাও। সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন শআবানা আজমি, অনুষ্কা শর্মা থেকে শুরু করে সলমন খান, রিচা চাড্ডা সহ সকলেই।

ট্যুইটারে নিজের ক্ষোভ ব্যক্ত করে অক্ষয় কুমার লেখেন, “হায়দ্রাবাদের প্রিয়াঙ্কা রেড্ডিই হন, তামিলনাড়ুর রোজা বা রাঁচির সেই আইনের ছাত্রী যে গণধর্ষণের শিকার হয়েছিল। সমাজ হিসাবে আমরা তাঁদের রক্ষা করতে ব্যর্থ। নির্ভয়া কাণ্ডের পর ৭ বছর কেটে গিয়েছে এখনও পরিস্থিতির কোনও পরিবর্তন হয়নি। আইনের পরিবর্তন দরকার। এসব বন্ধ করতে হবে।“ সলমন খান লেখেন, “মানুষের রূপে এরা শয়তান। নির্ভয়া ও প্রিয়াঙ্কা রেড্ডির মতো নিরীহ মেয়েদের মৃত্যু দেখে এবার আমাদের একত্রিত হয়ে এসব শয়তানদের মোকাবিলা করতে হবে।“ অভিনেত্রী রিটা চাড্ডা ট্যুইট করেন, “তাঁর একমাত্র দোষ ছিল তিনি ওদের কথআয় বিশ্বাস করেছিলেন যে ওরা তাঁর স্কুটি সারিয়ে দেবে। বিশ্বাসঘাতকদের এই সমাজে কোনও স্থান নেই। ওদের কঠোরতম শাস্তি পাওয়া উচিত। প্রিয়াঙ্কার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই“

https://twitter.com/RichaChadha/status/1200436547822194689

ট্যুইট করে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনুষ্কা শর্মাও। লিখেছেন, “ব্যথা, রাগ, অবিশ্বাস..খুবই ভয়ঙ্কর, দোষীদের কঠিনতম শাস্তির দাবি জানাই। প্রিয়াঙ্কার পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা রইল।“

এছাড়াও ট্যুইট করেছেন শাবানা আজমি, রকুল প্রীত সিং, জারিন খান সহ আরও অনেকেই। ভারতীয় ক্রিকেট অভিনায়ক বিরাট কোহলিও ট্যুইট করে এই নৃশংস কাণ্ডের প্রতিবাদ করেছেন।

Related Articles