বেআইনি নির্মাণ প্রসঙ্গে বড় রায় হাইকোর্টের! কাজে লাগলোনা অভিজিৎ গাঙ্গুলীর নির্দেশ

বাংলা হান্ট ডেস্ক : কিছুদিন আগেই হাওড়ার লিলুয়ায় (Liluah) একটি বেআইনি নির্মাণ ভাঙার নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্টের (Calcutta High Court) বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় (Abhijit Ganguly)। এই নির্দেশ দেওয়ার সময় তিনি আরও বলেছিলেন, ২৯৫ স্কোয়ার মিটারের ওই বেআইনি নির্মাণ (Illigal Construction) ২৯ নভেম্বরের মধ্যে ভেঙে ফেলতে হবে। আর সেই কাজে কেউ বাধা দিলে তাকেও গ্রেফতার করতে পারবে লিলুয়া থানার পুলিশ।

অভিজিৎ গাঙ্গুলীর নির্দেশে স্থগিতাদেশ 

   

তবে এবার সেই নির্দেশেই নেমে এল স্থগিতাদেশ। হাইকোর্টে অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় রায় শোনানোর পরপরই তার বিরোধীতা করে আবেদন পৌঁছায় ডিভিশন বেঞ্চে। আর এবার মঙ্গলবার বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ ওই নির্দেশের উপর এক সপ্তাহের জন্য স্থগিতাদেশ দিয়েছে। আগামী এক সপ্তাহের জন্য বহাল থাকবে অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশ বলে জানাল আদালত।

আরও পড়ুন : কোড রহস্য সমাধান, নিয়োগ দুর্নীতিতে বড় সলফলতা ED-র! ফিরহাদ, রথীনের পর র‍্যাডারে আরেক মন্ত্রী

ডিভিশন বেঞ্চের নয়া নির্দেশ

মঙ্গলবার হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ জানায়, ওই নির্মাণের প্রমোটার, বাসিন্দা সকলের জবানবন্দি শুনতে হবে বালি পুরসভাকে। সমস্ত বক্তব্য শোনার পর পুরসভার আধিকারিকরা আবারও পরিদর্শন করবে জায়গাটিকে। তারপরেই পুরসভা প্রশাসনিক অবস্থা ঠিক করবে। মূল অভিযোগকারী অনুপস্থিতিতে চূড়ান্ত নির্দেশ দেওয়া সম্ভব নয় বলে জানায় ডিভিশন বেঞ্চ।

আরও পড়ুন : ঘূর্ণিঝড় মিধিলির পর এবার মিউগাজম! পরিষ্কার আকাশ উত্তরে, কী খবর দক্ষিণবঙ্গের? IMD আপডেট

96889138 (1)

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, হাওড়া জেলার লিলুয়ায় রবীন্দ্র সরণীর ধীরেন্দ্র অ্যাপার্টমেন্ট-র ২৯৫ স্কোয়্যার মিটারের এক নির্মাণ নিয়ে শুরু হয়েছে তরজা। অভিযোগ ওঠে, এই নির্মাণটি বেআইনিভাবে তৈরি করা হয়েছে। মামলা আদালতে গড়ালে, বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় এই নির্মাণ ভেঙে ফেলার নির্দেশ দিয়েছিল। তিনি এইদিন স্পষ্টই জানান, ‘তার বাড়িও যদি বেআইনি হয় তাহলে তাও ভেঙে ফেলতে হবে।’

আরও পড়ুন : ‘মতুয়া কার্ড’ নিয়ে কেন্দ্র BJP-র কোন্দল! ‘রাজনীতি করতে এসে ভাঁওতা…’, বিধায়কের মন্তব্যে তোলপাড় রাজ্য

পুরসভার তরফ থেকে সমস্ত প্রস্তুতিও নেওয়া হয়ে গেছিল। তবে তার আগেই ফের আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে আবাসিকরা। আপাতত একক বেঞ্চের নির্দেশের উপর এক সপ্তাহের জন্য স্থগিতাদেশ দিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চ। তবে এটাও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে‌ যে, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে পুরসভাকে সবকিছু খতিয়ে দেখে তার রিপোর্ট পেশ করতে হবে এবং প্রশাসনিক অবস্থান ঠিক করে নিতে হবে। উল্লেখ্য, এর আগে অমৃতা সিংহের একক বেঞ্চও লিলুয়ার এই বেআইনি নির্মাণ ভাঙার নির্দেশ দিয়েছিলেন।