‘মতুয়া কার্ড’ নিয়ে কেন্দ্র BJP-র কোন্দল! ‘রাজনীতি করতে এসে ভাঁওতা…’, বিধায়কের মন্তব্যে তোলপাড় রাজ্য

বাংলা হান্ট ডেস্ক : কিছুদিন আগেই ঠাকুরবাড়ির ‘মতুয়া কার্ড’ (Matua Card) নিয়ে বড় মন্তব্য করেছিলেন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্র টেনি (Ajay Kumar Mishra Teni)। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তার বয়ানে জানিয়েছিলেন, ঠাকুরবাড়ির মতুয়া কার্ড নিয়ে দেশের যে কোনও প্রান্তে নির্ভয়ে ঘুরে বেড়াতে পারবেন মতুয়ারা। তবে এবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর মন্তব্যের কটাক্ষ খোদ বিজেপি (Bhartiya Janta Party) বিধায়কের। সাংসদ শান্তনু ঠাকুরের (Shantanu Thakur) স্বাক্ষর করা মতুয়া কার্ডের জেরে প্রকাশ্যে পদ্মের কোন্দল।

কার্ডের জেরে প্রকাশ্যে পদ্মের কোন্দল

   

সম্প্রতি অজয় মিশ্র টেনির মন্তব্যের বিরোধীতা করে বিজেপি বিধায়ক অসীম সরকার (BJP MLA Asim Sarkar) বলেন, ‘এই কার্ডের সঙ্গে নাগরিকত্বের প্রমাণপত্রের যোগ নেই।’ পাশাপাশি তিনি শঙ্কা প্রকাশ করেন, ‘মানুষের মনে যদি ‘মতুয়া কার্ড’ নিয়ে ভ্রান্ত ধারণা সৃষ্টি হয়, তাহলে তা নিয়ে ব্যবসা শুরু হয়ে যাওয়াও কোনও অসম্ভব বিষয় নয়।’ সহজ কথায় তার বক্তব্য, ‘মতুয়া কার্ড নাগরিকত্বের প্রমাণপত্র হতে পারে না।’

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বিরোধীতা খোদ বিজেপির

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত সোমবার উত্তর ২৪ পরগনার বাগদা ব্লকের হেলেঞ্চার একটি বেসরকারি লজে একটি সম্মেলনের আয়োজন করে একটি বাগদা উদ্বাস্তু সেল। এইদিন সেই সভায় উপস্থিত ছিলেন হরিণঘাটার বিধায়ক অসীম সরকার। বক্তৃতা দেওয়ার সময় স্পষ্ট ভাষাতেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর মন্তব্যের বিরোধীতা করেন তিনি।

asim sarkar

মতুয়া কার্ড কখনও পরিচয়পত্র হতে পারেনা

বিজেপি বিধায়কের কথায়, ‘মতুয়া কার্ড হিন্দুত্বের প্রমাণপত্র হতে পারে। নাগরিকত্বের নয়। আমি রাজনীতি করতে এসে ভাঁওতা দিই না কখনও। তাতে রাজনীতি হোক বা না হোক।’ বিজেপি বিধায়কের সংযোজন, ‘গতকাল অনেক মতুয়ারা আমাকে ফোন করেছে। মতুয়া কার্ডই নাগরিকত্বের প্রমাণপত্র কি না জানতে চাইছেন। এটা হতে পারে না। এমন হলে মতুয়া কার্ড নেওয়ার জন্য টেন্ডার হবে। ১০০ টাকা কেন ৫০০ টাকা দিয়ে মতুয়া কার্ড নেওয়ার জন্য হিড়িক পড়বে।’

asim sarkar

কটাক্ষের তীর তৃণমূল ও সিপিএমের

এই পুরো বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পরেই শুরু হয় বিতর্ক। ইতিমধ্যেই এই বিষয়টা নিয়ে কটাক্ষের তীর ছুঁড়েছে সিপিএম এবং তৃণমূল কংগ্রেস। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত রবিবার ঠাকুরবাড়িতে এসেছিলেন অজয়কুমার মিশ্র টেনি। ঐদিন তিনি বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুরের সহযোগিতায় একটি কার্ডের কথা উত্থাপন করেন। এবং তিনি বলেন, নাগরিকত্ব আইন লাগু হওয়া পর্যন্ত এই কার্ড নিয়ে মতুয়ারা দেশের যে কোনও প্রান্তে যাতায়াত করতে পারবে।