তৃণমূল বিধায়ক জাফিকুলের বাথরুমে টাকার পাহাড়! বেডরুমেও তল্লাশি, যন্ত্র বসিয়ে নগদ গুনছে CBI

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ লক্ষীবার সাতসকালে দমদার অ্যাকশনে নামে সিবিআই (Central Bureau of Investigation)। বিজেপির শাহী সভা শেষ হয়েছে ২৪ ঘণ্টাও হয়নি। এরই মধ্যে নিয়োগ দুর্নীতি মামলার (Recruitment Scam) তৃণমূলের একাধিক কাউন্সিলর, বিধায়কের বাড়িতে সকাল থেকে চলছে সিবিআই হানা।

নজরে জাফিকুল

   

বৃহস্পতিবার সকালে মুর্শিদাবাদের ডোমকলের তৃণমূল বিধায়ক জাফিকুল ইসলামের (TMC MLA) বাড়িতে গোয়েন্দা অভিযান। জাফিকুলের বাড়িতেও তল্লাশি শুরু করে সিবিআই। সঙ্গে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান নিয়ে তদন্তকারীদের চার সদস্যের দল পৌঁছে যায় বিধায়কের বাড়ি। এরই মধ্যে শোনা যায় বিকেলে টাকা গোনার যন্ত্র নিয়ে সিবিআই আধিকারিকেরা জাফিকুল ইসলামের বাড়িতে ঢোকে।

আরও পড়ুন: প্রাথমিক নিয়োগ মামলায় তোলপাড়! আদালতের নির্দেশে অনিশ্চিত ‘এই’ ১২০০০ চাকরিপ্রার্থীর ভবিষ্যত

বাথরুম থেকেই উদ্ধার লক্ষ লক্ষ টাকা

সূত্রে খবর, জাফিকুলের বাড়ি থেকে লক্ষ লক্ষ নগদ টাকা উদ্ধার করেছে সিবিআই। বাড়ির শৌচাগার থেকে মিলেছে লক্ষ লক্ষ টাকা। জানা যাচ্ছে, শৌচাগার থেকে মোট সাত লক্ষ ৯০ হাজার টাকা উদ্ধার হয়েছে। এদিকে বিধায়কের শোয়ার ঘরেও তল্লাশি চলছে। সেখান থেকেও টাকা উদ্ধার হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন গোয়েন্দারা।

বিধায়ক এখন কলকাতায়

বিধায়ক বর্তমানে বিধানসভা অধিবেশনের জন্য কলকাতায় রয়েছেন। সূত্রের খবর, তার পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন সম্প্রতি বেশ কিছু সম্পত্তি বিক্রি করা হয়েছে। সেই টাকাই তদন্তকারীরা পেয়েছেন। তবে পরে আরও কোনও টাকা উদ্ধার হয়েছে কিনা সেই বিষয়ে এখনও কিছু জানা যায়নি।

একজোটে একাধিক তৃণমূল নেতার বাড়িতে CBI হানা

এদিন একজোটে একাধিক তৃণমূল নেতার বাড়িতে হানা দেয় সিবিআই। শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ তৃণমূল কাউন্সিলর (TMC Councillor) বাপ্পাদিত্য দাশগুপ্তর বাড়িতে হানা দিয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই। কলকাতার ১০১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলরের পাশাপাশি কলকাতা পুরসভায় তৃণমূলের মুখ্য সচেতক বাপ্পাদিত্য।

tmc mlas cbi raid

তেঘরিয়ায় তৃণমূল কাউন্সিলর দেবরাজ চক্রবর্তীর (TMC Councillor Debraj Chakraborty) বাড়িতেও তল্লাশি চালায় সিবিআই। দেবরাজ তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক গায়িকা অদিতি মুন্সীর স্বামী। প্রসঙ্গত এর আগেও তাকে একটি মামলায় তলব করেছিল সিবিআই। আজ বেশ কিছু নথিপত্র নিয়ে তার বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় তদন্তকারীরা।