শুধুমাত্র ‘ঝটকা’ মাংস খাওয়া উচিৎ! হিন্দুদের বিরাট বার্তা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজের, জানেন কি এটি?

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আজকাল অন্যই দুনিয়ায় থাকছেন। একদিকে গোটা বাংলা দুর্নীতিতে ডুবে যাচ্ছে, গরিবদের ঠকিয়ে দেদারে চলছে লুঠ। আর সেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে সলমন খানের সঙ্গে ঠুমকা লাগাচ্ছেন।’ সম্প্রতি এই মন্তব্য করে জোর সমালোচিত হয়েছিলেন কেন্দ্রের মন্ত্রী গিরিরাজ সিংহ (Union Rural Development Minister Giriraj Singh)। সেই বিতর্কের রেশ কাটতে না কাটতেই ফের আরেক মন্তব্য করে সংবাদের শিরোনামে কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী।

   

এবার হিন্দুদের (Hindus) বিশেষ বার্তা দিলেন গিরিরাজ। তাও আবার মাংস খাওয়া নিয়ে। কী ধরনের মাংস খাবেন, কী মাংস খাবেন না, সেই নিয়ে মন্তব্য কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী গিরিরাজের। হিন্দুদের পরামর্শ দিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, হিন্দুদের হালাল করা মাংস (Halal Meat) খাওয়া বন্ধ করে দেওয়া উচিত। তার বদলে তাদের শুধুমাত্র এক কোপে কাটা পশুর মাংস অর্থাৎ ‘ঝটকা’ মাংসই খাওয়া উচিত। এমনটাই মত গিরিরাজের।

আরও পড়ুন: অবশেষে কাটল জট! প্যারা টিচার নিয়োগ নিয়ে বিরাট রায় দিল কলকাতা হাই কোর্ট

গতকাল নিজের বিধানসভা কেন্দ্র বেগুসরাইতে একটি জনসভায় উপস্থিত ছিলেন গিরিরাজ। সেখানেই তিনি বলেছেন, ​“হিন্দুরা হিন্দুদের থেকে আর মুসলমানরা মুসলমানদের থেকে মাংস কিনবে সে দিন তো চলে গেছে! এখন হিন্দুরা মুসলমানদের থেকে মাংস কিনছে। হালাল মাংস হিন্দু ধর্মবিরোধী। হিন্দুদের এক কোপে কাটা মাংস খাওয়া উচিত। “

giriraj singh 2

প্রসঙ্গত, ইসলাম ধর্মাবলম্বীরা শুধুমাত্র হালাল মাংসই খান। গিরিরাজের মতে, হিন্দুরা যাতে হালাল করা মাংস না খান। এতে তাদের ‘ধর্ম’ নষ্ট হবে। প্রবীণ এই সাংসদ আরও বলেন, “আমি সেই মুসলমানদের প্রশংসা করি যারা শুধু হালাল মাংস খান। এখন হিন্দুদের উচিত তাদের নিজস্ব ধর্মীয় ঐতিহ্যের প্রতি সেই রকম অঙ্গীকার প্রদর্শন করা।” গিরিরাজ বলেন, “আগে তো ‘হিন্দুরা’ মুরগির মাংসও ছুঁয়ে দেখত না। এখন তো সব খাচ্ছে।”