ক্রিপ্টো মাইনিং করেই কামান লাখ লাখ টাকা, মারাত্মক সুযোগ এনে দিল CGMD Miner, বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ক্রিপ্টো মাইনিং কোম্পানি 

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক: অতিরিক্ত অর্থ উপার্জন (Income) করতে কে না চান? এমতাবস্থায় বর্তমান সময়ে যুগের সাথে তাল মিলিয়ে উপলব্ধ হচ্ছে উপার্জনের বিভিন্ন নতুন নতুন ক্ষেত্র। যেগুলিকে সঠিকভাবে কাজে লাগিয়ে আপনি হয়ে উঠতে পারেন লাভবান। এমনিতেই, এখনকার দিনে অনলাইন মাধ্যমগুলির সাহায্যেও বিপুল অর্থ উপার্জনের সুযোগ রয়েছে। তবে তার জন্য চাই সঠিক দক্ষতা এবং উপায়। সেই রেশ বজায় রেখেই আপনি যদি অতিরিক্ত অর্থ উপার্জন করতে চান সেক্ষেত্রে অন্যতম প্ল্যাটফর্ম হল ক্লাউড মাইনিং (Cloud Mining)।

এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, যত বেশি খেলোয়াড় ক্রিপ্টোকারেন্সির ক্ষেত্রে প্রবেশ করেন সেক্ষেত্রে মাইনিং আরও জটিল হয়ে ওঠে এবং আরও কম্পিউটিং পাওয়ারের প্রয়োজন হয়। ফলস্বরূপ, অনেকেই থাকেন যাঁরা তাঁদের নিজস্ব হার্ডওয়্যার ব্যবহার করে ক্রিপ্টোকারেন্সি মাইনিং করেন। কিন্তু সেখানে অত্যধিক বিদ্যুতের বিল সহ খরচ বৃদ্ধির কারণে এখন ক্লাউড মাইনিং একটি আকর্ষণীয় বিকল্প হয়ে উঠেছে।

ক্লাউড মাইনিং কি: উল্লেখ্য যে, ক্লাউড মাইনিং হল একটি মেকানিজম যা হার্ডওয়্যার বা সেই সম্পর্কিত সফ্টওয়্যার ইনস্টল এবং সরাসরি চালনা না করেই বিটকয়েনের মতো ক্রিপ্টোকারেন্সি মাইনিংয়ে ভাড়া করা ক্লাউড কম্পিউটিং শক্তি ব্যবহার করে। ক্লাউড মাইনিং কোম্পানিগুলি সবাইকে সাধারণ খরচে অ্যাকাউন্ট খুলতে এবং ক্রিপ্টোকারেন্সি মাইনিং প্রক্রিয়ায় অংশ নেওয়ার ক্ষেত্রে অনুমতি দেয়। যা বিশ্বজুড়ে আরও বেশিজনের কাছে মাইনিংকে অ্যাক্সেসযোগ্য করে তোলে। যেহেতু মাইনিংয়ের এই ক্ষেত্রটি ক্লাউডের মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়, তাই সরঞ্জাম রক্ষণাবেক্ষণ বা সরাসরি শক্তি খরচের মতো সমস্যাগুলি হ্রাস পায়। সব মিলিয়ে, আপনি যদি সত্যিই ঝামেলাহীন বিনিয়োগের অভিজ্ঞতা চান সেক্ষেত্রে ক্লাউড মাইনিং আপনার জন্য শ্রেষ্ঠ।

কিভাবে ক্লাউড মাইনিং শুরু করবেন: ক্লাউড মাইনিং (Cloud Mining) শুরু করার ক্ষেত্রে আপনাকে যে প্রাথমিক পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করতে সেগুলি বিস্তারিতভাবে তুলে ধরা হল।

প্রথম ধাপ: সবার প্রথমে একটি ক্লাউড মাইনিং (Cloud Mining) প্রোভাইডার কে নির্বাচন করুন। এক্ষেত্রে CGMD Miner হল একটি জনপ্রিয় এবং শক্তিশালী ক্রিপ্টোকারেন্সি মাইনিং প্ল্যাটফর্ম এবং প্যাসিভ ক্রিপ্টোকারেন্সি আয় উপার্জনের জন্য একটি চমৎকার ক্ষেত্র। এই প্ল্যাটফর্মটি বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় মাইনিং কোম্পানিগুলির মধ্যে অন্যতম একটি। পাশাপাশি, আপনার বিশ্বস্ত পার্টনারও হয়ে উঠতে পারে এটি। ইতিমধ্যেই CGMD মাইনার একটি ফ্রি বিটকয়েন মাইনিং প্রোগ্রাম চালু করেছে। যা আপনাকে প্যাসিভ বিটকয়েন উপার্জন করার সুযোগ দেয়। সবথেকে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, প্রযুক্তিগত জ্ঞান বা আর্থিক সংস্থান নির্বিশেষে, কোনো স্ট্রিং সংযুক্ত না করেই প্রত্যেকের জন্য বিটকয়েন মাইনিংয়ের ক্ষেত্রে প্রতিশ্রুতি দেয় এই প্ল্যাটফর্ম। আপনি এখানে একবার ১২ USDT মূল্যের বিটকয়েন মাইনিং করলে, সেগুলিকে আপনার অ্যাকাউন্টে স্থানান্তর করতে পারেন এবং ট্রেডও করতে পারেন। আপনি আপনার প্রতিটি লাভ আপনার ব্যক্তিগত ওয়ালেটে তুলতে পারবেন।

এই প্ল্যাটফর্মের সুবিধা:
১. সাইন আপ করলেই মিলবে ১০ ডলারের বোনাস।
২. দারুণভাবে লাভের সুযোগ এবং দৈনিক পেআউট।
৩. অন্য কোনো সার্ভিস কিংবা অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ফি নেই।
৪. ব্যবহারকারীরা এই প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে ৬ টিরও বেশি অন্যান্য কারেন্সি তৈরি করতে পারেন।
৪. কোম্পানির অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রাম আপনাকে এটি বন্ধুদের রেফার করতে এবং রেফারেল বোনাসে ৩,০০০ ডলার পর্যন্ত উপার্জন করার সুযোগ দেয়।
৫. McAfee® সিকিউরিটি প্রোটেকশন এবং Cloudflare® সিকিউরিটি প্রোটেকশন।

দ্বিতীয় ধাপ: প্রথমে অ্যাকাউন্টের জন্য সাইন আপ করুন। উদাহরণস্বরূপ, আমরা যদি CGMD মাইনারকে বেছে নিই সেক্ষেত্রে একটি নতুন অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে সাইন আপ করতে হবে। CGMD মাইনার একটি সহজ রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া উপলব্ধ করে। অংশগ্রহণের জন্য যা প্রয়োজন তা হল একটি ইমেল অ্যাড্রেস। সাইন আপ করার পরে, ব্যবহারকারীরা তৎক্ষণাৎ বিটকয়েন মাইনিং শুরু করতে পারেন।

Now CGMD Miner will make you profitable

তৃতীয় ধাপ: এক্ষেত্রে আপনাকে একটি মাইনিং কন্ট্রাক্ট কিনতে হবে। বর্তমানে, CGMD Miner বিভিন্ন মাইনিং কন্ট্রাক্ট উপলব্ধ করেছে। যেমন ১০০ ডলার, ৫০০ ডলার, এবং ১,০০০ ডলারের প্যাকেজ। প্রতিটির একটি অনন্য ROI এবং একটি নির্দিষ্ট চুক্তির মেয়াদ রয়েছে। আপনি নিচে প্রদত্ত কন্ট্রাক্টে অংশগ্রহণ করে আরও বেশি প্যাসিভ ইনকাম আনলক করতে পারবেন। যখন আপনার আয় ১০০ ডলারে পৌঁছবে তখন আপনি আপনার এনক্রিপ্টেড ওয়ালেটে সেটি উইথড্র করতে পারেব বা অন্যান্য কন্ট্রাক্ট ক্রয় করতে পারেন।

Now CGMD Miner will make you profitable

অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রাম: ইতিমধ্যেই CGMD মাইনার একটি অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামও চালু করেছে। এর মাধ্যমে আপনি বিনিয়োগ না করলেও অর্থ উপার্জন শুরু করতে পারেন। সেক্ষেত্রে নির্দিষ্ট সংখ্যক পজিটিভ রেফারেলের মাধ্যমে ইনভাইট জানানোর পরে, আপনি ৩,০০০ ডলার পর্যন্ত এককালীন নির্দিষ্ট বোনাস পাবেন। এইভাবেই আপনি আনলিমিটেড রেফারেল সহ দুর্দান্ত আয় করতে পারবেন। পাশাপাশি, এই প্রসঙ্গে বিস্তারিত তথ্য জানার জন্য www.cgmdminer.com-এই অফিসিয়াল ওয়েবসাইটটিতে ক্লিক করুন।

Sayak Panda
Sayak Panda

সায়ক পন্ডা, মেদিনীপুর কলেজ (অটোনমাস) থেকে মাস কমিউনিকেশন এবং সাংবাদিকতার পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্স করার পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। ২ বছরেরও বেশি সময় ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর