হঠাৎ সমস্ত পদ থেকে ইস্তফা দিলেন সিউড়ি পুরসভার চেয়ারম্যান! নেপথ্যে কোন কাহিনী?

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ জল্পনা চলছিলই, এরই মধ্যে এবার সিউড়ি পৌরসভার (Suri Municipality) সমস্ত রকম পদ থেকে ইস্তফা দিলেন পুরসভার চেয়ারম্যান (Chairperson) প্রণব কর। একই সঙ্গে সরে দাঁড়ালেন কাউন্সিলর পদ থেকে। সোমবার এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শোরগোল শুরু হয়েছে পৌরসভা এলাকায়।

সূত্রের খবর, এদিন প্রণববাবু সিউড়ি এসডিও অফিসে আসেন এবং সেখানে নিজের চেয়ারম্যান ও কাউন্সিলর পর থেকে পদত্যাগের জন্য ইস্তফা পত্র প্রদান করেন। একজোটে সমস্ত পদ থেকে সরে দাঁড়ানোয় নানান জল্পনার তৈরি হচ্ছে। যদিও তিনি যাবতীয় জল্পনার অবস্থান টেনে জানান শারীরিক ও পারিবারিক সমস্যার কারণেই তার এই পদত্যাগ।

যদিও ওয়াকিবহল মহলের মত ঘটনার নেপথ্যে রয়েছে তৃণমূলের অন্তর্কলহ। বিভিন্ন সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে, তার বিরুদ্ধে কাউন্সিলারদের একাংশ একাধিকবার সরব হয়েছিলেন। প্রসঙ্গত সিউড়ি পুরসভার ২১ জন কাউন্সিলরই তৃণমূলের। তার মধ্যে ১৩ জন আজ থেকে প্রায় ছয় মাস আগে অনাস্থা আনেন প্রণব করের বিরুদ্ধে।

যদিও প্রণববাবুর দাবি, এখনো পর্যন্ত তার বিরুদ্ধে কোনো রকম দুর্নীতি কেউ প্রমাণ করতে পারেনি। অনাস্থা প্রসঙ্গে বলেন, “অনেকেই আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। কিন্তু কেউ কোনও প্রমাণ দিতে পারেনি।”

suri chairperson

অন্যদিকে এই কাউন্সিলর তথা চেয়ারম্যান আবার বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল ঘনিষ্ঠ বলেই পরিচিত। গত বছর অগাস্ট মাস থেকে গরু পাচার মামলায় জেলে রয়েছেন কেষ্ট। কান পাতলে শোনা যায় অনুব্রত জেলবন্দী হওয়ার পর একের পর থেকেও নাকি একের পর এক অনুব্রত ঘনিষ্ঠ তৃণমূল নেতাদের দল থেকে ছেঁটে ফেলা হচ্ছে। এই আবহে এবার প্রণব করের এমন সিদ্ধান্ত নতুন করে জল্পনার সৃষ্টি করছে রাজনৈতিক মহলে।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর