কাঙাল পাকিস্তানের জন্য ফের দরাজহস্ত চীন! এবার এত টাকা ঋণ দিল বেজিং, শুনে চমকে যাবেন

বাংলা হান্ট ডেস্ক: বর্তমান সময়ে পাকিস্তান (Pakistan) ভয়াবহ অর্থনৈতিক সঙ্কটের সম্মুখীন হয়েছে। শুধু তাই নয়, অর্থনৈতিক অবস্থা শোচনীয় হয়ে পড়ায় আপাতত ওই দেশকে ঋণের ওপরেই ভরসা রাখতে হচ্ছে। এমতাবস্থায়, একটি বড় খবর সামনে এসেছে। প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী জানা গিয়েছে, বৈদেশিক মুদ্রার ভান্ডার বৃদ্ধির লক্ষ্যে পাকিস্তানকে দু’বছরের জন্য ২.৪ বিলিয়ন ডলার ঋণ দিয়েছে চিন।

বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের অর্থমন্ত্রী ইশাক দার এই সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, “চিনের EXIM ব্যাঙ্ক দু’বছরের জন্য মোট ২.৪ বিলিয়ন ডলার ঋণ দিয়েছে। ২০২৩-২৪ অর্থবর্ষের জন্য ১.২ বিলিয়ন ডলার এবং ২০২৪-২৫ অর্থবর্ষের জন্য ১.২ বিলিয়ন ঋণ দেওয়া হয়েছে।”

   

পাশাপাশি, পাকিস্তানের অর্থমন্ত্রী আরও জানিয়েছেন, “পাকিস্তান এই দু’টি অর্থবর্ষে শুধু সুদ প্রদান করবে।” এদিকে, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরীফ আগেই ঘোষণা করেছিলেন যে, চিন তাঁর দেশের দুর্বল অর্থনীতির কথা বিবেচনা করে পাকিস্তানকে সাহায্য করতে ৬০ কোটি ডলারের ঋণ দিয়েছে।

এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, এটি হল ৫ বিলিয়ন ডলারেরও বেশি ঋণের অতিরিক্ত যেটি চিন গত তিন মাসে পাকিস্তানকে ঋণখেলাপি হওয়ার হাত থেকে বাঁচতে সহায়তার জন্য দিয়েছে। পাশাপাশি, চিন বারবার নতুন ঋণ প্রদান এবং পূর্ববর্তী ঋণের রোলওভারের মাধ্যমে পাকিস্তানকে তার ঋণের দায় মেটাতে সাহায্য করছে।

পাকিস্তান এর আগেও আর্থিক সাহায্য পেয়েছে: ডন সংবাদপত্রের রিপোর্ট অনুসারে জানা গিয়েছে, পাকিস্তান গত ৩০ জুন IMF অর্থাৎ আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের কাছ থেকে সর্বশেষ ৩ বিলিয়ন ডলারের বেলআউট প্যাকেজ পেয়েছে। এদিকে, সৌদি আরব থেকে ২ বিলিয়ন ডলার এবং সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর কাছ থেকেও ১ বিলিয়ন ডলারের আর্থিক সহায়তা পেয়েছে পাকিস্তান।

China gave huge loan to Pakistan

পাকিস্তানের বৈদেশিক মুদ্রার ভান্ডার দ্বিগুণ হয়েছে: ইতিমধ্যেই পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক গত সপ্তাহে জানিয়েছে যে, গত ১৪ জুলাই শেষ হওয়া সপ্তাহে সেদেশের বৈদেশিক মুদ্রার ভান্ডার ৪.২ বিলিয়ন ডলার থেকে প্রায় দ্বিগুণ বৃদ্ধি পেয়ে ৮.৭ বিলিয়ন ডলার হয়েছে।

Sayak Panda
Sayak Panda

সায়ক পন্ডা, মেদিনীপুর কলেজ (অটোনমাস) থেকে মাস কমিউনিকেশন এবং সাংবাদিকতার পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্স করার পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। ২ বছরেরও বেশি সময় ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর