টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচন

বাড়ি ফিরেই পায়ের প্লাস্টার কাটাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী, নিজের মুখেই জানালেন সেকথা

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ১০ মার্চ নন্দীগ্রাম আসনের জন্য মনোনয়ন জমা দিয়ে মন্দিরে মন্দিরে পুজো দেওয়ার সময় আঘাত পান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এরপর তড়িঘড়ি ওনাকে কলকাতায় নিয়ে এসে চিকিৎসা করানো হয়। আর সেই তখন থেকেই ওনার পায়ে ব্যান্ডেজ বাধা। পায়ে ব্যান্ডেজ নিয়েই তিনি প্রচার চালাচ্ছেন রাজ্যের এপ্রান্ত থেকে ওপ্রান্ত। আর এবার তিনি জানালেন যে, ওনার পা হয়ত এখন সেরে গিয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী বর্তমানে শেষ দফার নির্বাচনের প্রচারে ব্যস্ত। তবে তিনি প্রকাশ্য জনসভা করছেন না। ভার্চুয়াল বৈঠক করেই জনসভায় ভাষণ দিচ্ছেন। কিন্তু কলকাতায় বসে তিনি এই কাজ করছেন না। বরঞ্চ যেই জেলায় নির্বাচন, সেখানে গিয়েই তিনি ভার্চুয়াল সভা করছেন। রবিবার মুর্শিদাবাদ থেকেও তিনি ভার্চুয়াল সভা করেন, আর সেখান থেকেই তিনি ইঙ্গিত দেন যে ওনার পা পুরোপুরি সেরে গিয়েছে। বাড়ি ফিরেই তিনি প্লাস্টার কাটাবেন।

রবিবার বহরমপুরের রবীন্দ্র সদন থেকে একটি ভার্চুয়ালি জনসভা করেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখান থেকে তিনি বলেন, ‘এই পা নিয়েই গত দেড় মাস ধরে আমি জেলায় জেলায় ঘুরছি। এখন হয়ত আমার পা সেরে গিয়েছে। কিন্তু আমি এখন বাড়িতে যেতে পারছি না বলেই প্লাস্টার কাটাতে পারছি না, বাড়ি ফিরেই প্লাস্টার কাটাতে হবে।” মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ আমি টানা দশ দিন ধরে বাড়ির বাইরে রয়েছি।”

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এও বলেন যে, ‘বিগত দেড় মাসে আমি এক ফোটাও সময় নষ্ট করিনি। রাজ্যের প্রতিটা জেলায় গিয়ে গিয়ে প্রচার করেছি। এই পা নিয়ে প্রতিটি সভায় গিয়েছি। এবার বাড়ি ফিরে প্লাস্টারটা কাটানোর ব্যবস্থা করব।” সুত্র অনুযায়ী, রবিবারই কলকাতায় ফিরতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী। এরপর মঙ্গলবার হাসপাতালে গিয়ে তিনি পায়ের ব্যান্ডেজ কাটাতে পারেন।

Related Articles