টাইমলাইনভারতরাজনীতি

বিরোধী দলগুলোর সঙ্গে বৈঠকের ডাক কংগ্রেসের, তৃণমূলের পর এবার দূরত্ব বাড়াল NCP এবং শিবসেনাও

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে কেন্দ্র সরকারকে আক্রমণ করার কংগ্রেসের (congress) প্রচেষ্টাকে বড় ধাক্কা দিয়েছে তৃণমূল, শিবসেনা এবং এনসিপি। জানা গিয়েছে, রাজ্যসভার বিরোধী দলীয় নেতা মল্লিকার্জুন খার্গের ডাকা বৈঠকে সোমবার তৃণমূল, শিবসেনা এবং এনসিপির কেউই যোগ দিচ্ছেন না।

দিল্লী গিয়ে সোনিয়া গান্ধী এবং রাহুল গান্ধীর সঙ্গে বৈঠক করে আসার পর জোটের জল্পনা তৈরি হলেও, বাংলায় এসে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী থেকে শুরু করে তৃণমূল নেতৃত্বদের মুখে শুধুই কংগ্রেসের সমালোচনা শোনা গিয়েছে। তারউপর আবার বেশ কয়েকজন কংগ্রেস নেতা তৃণমূলে যোগ দেওয়ার কারণে, মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণও করা হয়েছিল। আবার সম্প্রতি সময়ে দিল্লী গিয়ে কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে দেখাও করেননি বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। যার ফলে কংগ্রেস তৃণমূলের বন্ধুত্বে কিছুটা ফাটল ধরেছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

কংগ্রেসের ডাকা বৈঠকে তৃণমূলের অনুপস্থিতির প্রসঙ্গে মল্লিকার্জুন খার্গে জানিয়েছেন, ‘তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েনের সাথে কথা হয়েছে। উনি বলেছেন, তৃণমূলের কার্যনির্বাহী বৈঠকের কারণে, তাঁরা উপস্থিত হতে পারবেন না’। আবার শিবসেনা সাংসদ সঞ্জয় রাউতের বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠান থাকার কারণে শিবসেনার সদস্যরাও বৈঠকে উপস্থিত হতে পারবেন না বলে জানা গিয়েছে।

মল্লিকার্জুন খার্গে জানিয়েছেন, ‘এই অধিবেশন খুবই গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। এখানে কৃষি আইন থেকে শুরু করে, ক্রমবর্ধমান মূল্যস্ফীতি, বেকারত্বসহ অনেক বিষয়ে আমরা আলোচনা করতে চাই। আমরা চাই আমাদের দাবি দাওয়া নিয়ে সংসদে ব্যাপক আলোচনা হোক। আর আমরা সকল বিরোধী দল একসঙ্গে মিলে সরকারের বিরুদ্ধে দাঁড়াতে চাই’।

Related Articles

Back to top button