fbpx
কলকাতাটাইমলাইনভারত

যদি এখনও সতর্ক না হওয়া যায় তাহলে ভারতে মহামারীর রূপ নিতে চলেছে করোনা ভাইরাস

বাংলা হান্ট ডেস্ক : চীন থেকে আগত করোনা ভাইরাস ধীরে ধীরে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। বিভিন্নদেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়তেই থেকেছে। দিনের পর দিন করতোনা ভাইরাসের থাবায় ইতালিতে যেন মৃত্যুর মিছিল শুরু হয়েছে।

করোনা ভাইরাসের থাবায় কার্যত স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে গোটা বিশ্ব। অন্যান্য দেশের পাশাপাশি ভারতেও ঢুকে পড়েছে এই মারণ রোগ। এরমধ্যেই বারতে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৪৭ এবং করোনা ভাইরাসের জেরে ভারতে মৃত্যু হয়েছে ৭ জনের।

করণা সংক্রমণ ঠেকাতে হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার ও রাজ্য সরকার। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির কাজ প্রশংসনীয়।করণা মোকাবিলায় ভারতে ২৩ শে মার্চ থেকে লকডাউন ৭৫ টি এলাকা। কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায় ২৩ শে মার্চ বিকেল ৪ টে থেকে শুরু হয়েছে লকডাউন।

করোনা আতঙ্কের মাঝেই মার্কিন স্বাস্থ্য সংস্থার একটি গবেষণায় উঠে আসলো ভয়ঙ্কর এক তথ্য। যাতে দেখা গিয়েছে, এই মারণ রোগে ভারতে আক্রান্ত হতে পারে প্রায় ৩০ কোটি মানুষ। এই সংস্থার পরিচালক এক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে বলেন,” খুব দ্রুত করোনা ভাইরাস সংক্রমণের সুনামি বয়ে যেতে পারে হতে পারে ভারতে। দেশটিতে ৩০ কোটি মানুষ করণায় আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তাদের মধ্যে ৪০ থেকে ৫০ লক্ষ মানুষের সংকটজনক অবস্থা হতে পারে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে,ভারত এখন দ্বিতীয় স্টেজে রয়েছে। এই অবস্থায় যদি প্রত্যেকটি ভারতবাসী সচেতন মূলক ব্যবস্থা অবলম্বন করতে পারে এবং সতর্ক হতে পারে তাহলেই আগামী দিন করোনা মুক্ত দেশ গড়তে সক্ষম হবে ভারত। মানুষের অসাবধানতার ফলে আগামী দিনে যদি করোনা ভাইরাস স্টেজ ৩ প্রবেশ করে তাহলে এটি মহামারির আকার ধারণ করবে ভারতে যার ফলে মৃত্যু হবে কোটি কোটি মানুষের।

Back to top button
Close
Close