পশ্চিমবঙ্গটাইমলাইন

রাস্তায় লাঠি হাতে জনতাকে মারছেন রাজ্যের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী! ভাইরাল হল ভিডিও

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ কৃষি আইনের বিরোধিতায় পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান রাজ্যের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী। আর ওনার এই বিক্ষোভের জেরে আটকে যায় ভ্যাকসিনবাহী কনভয়। যদিও, বিক্ষোভ সরিয়ে ভ্যাকসিনবাহী যেতে না পারায় অবশেষে কনভয়টিকে ঘুরিয়ে জাতীয় সড়কের দিকে পাঠায় পুলিশ। পূর্ব বর্ধমানের গলসিতে ঘটে যাওয়া এই ঘটনার জেরে তাজ্জব সবাই। আবার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা এই ঘটনার পর বলেছেন, ‘৯৫ কোটি মানুষের রুটি-রুজির কাছে ভ্যাকসিন এতটা মূল্যবান না।”

এই ঘটনার ভিডিও পোস্ট করে সিদ্দিকুল্লা আর রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন বিজেপির মহাসচিব তথা রাজ্য বিজেপির পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়। তিনি ভিডিও ট্যুইট করে লেখেন, ‘পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা কৃষি আইনের বিরুদ্ধে পূর্ব বর্ধমানের গলসীতে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। এই বিক্ষোভ প্রদর্শনের কারণে অনেকক্ষণ রাস্তা জ্যাম থাকে। দীর্ঘক্ষণ রাস্তা জ্যাম থাকায় আর গাড়ি আটকে থাকায় অনেকেই মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লার বিরোধিতা করেন, এরপর মন্ত্রী নিজে হাতে লাঠি নিয়ে জনতাকে মারা শুরু করেন।”

কৈলাস বিজয়বর্গীয়র পোস্ট করা ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে, মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা একটি লাঠি নিয়ে জনতাকে তাড়ানোর চেষ্টা করছেন। এরপর সেখানে উপস্থিত এক বৃদ্ধ মানুষের দিকে সিদ্দিকুল্লা লাঠি নিয়ে গেলে, উপস্থিত জনতা ক্ষেপে যায়। আর উল্টে সিদ্দিকুল্লার দিকে তেড়ে আসে। এরপর মন্ত্রীর অনুগামী এবং মন্ত্রীর দেহরক্ষীরা মন্ত্রীকে সেখান থেকে কোনও ক্রমে সরিয়ে নিয়ে যায়।

জানিয়ে রাখি, বুধবার সকালে কলকাতা থেকে বিশেষ কনভয়ে ভ্যাকসিন এসে পৌঁছায় পূর্ব বর্ধমানে। সেখানে থেকে ভ্যাকসিন যাওয়ার কথা ছিল বাঁকুড়ায়। কিন্তু বাঁকুড়ায় যাওয়ার সময় ঘটে বিপত্তি। নতুন কৃষি আইনের বিরোধীতায় রাজ্যের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী সেই সময় বর্ধমানের গলসীতে নিজের অনুগামীদের নিয়ে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন। এরফলে আটকে পড়ে ভ্যাকসিনবাহী কনভয়।

খবর পাওয়া মাত্রই আসরে নামে পুলিশ। সড়ক অবরোধের কারণে সেই রাস্তা দিয়ে ভ্যাকসিনবাহী গাড়ি যেতে না পারায় অবশেষে ঘুরপথে সেই ভ্যাকসিনের কনভয়কে জাতীয় সড়কের দিকে পাঠায় পুলিশ। এরপর বুদবুদ হয়ে জাতীয় সড়কে উঠে ফের গন্তব্য স্থলের দিকে রওনা দেয় ভ্যাকসিনবাহী গাড়ি।

এই বিষয়ে রাজ্যের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী সাফাই দিয়ে বলেন, ‘ভ্যাকসিনের কনভয় কমপক্ষে ২০০ গাড়ির পিছনে ছিল। আমি ভ্যাকসিনবাহী গাড়িটিকে পার করে দেওয়ার চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু আমার আগে পুলিশ এই গাড়িটিকে পার করিয়ে দেয়। দেশের ৯৫ কোটি মানুষের রুটি-রুজির কাছে ভ্যাকসিন এতটা মূল্যবান না।”

Back to top button