টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ বর্ষীয়ান বাম নেতা কান্তি গাঙ্গুলি

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ বাংলার বিধানসভা নির্বাচনের এবার ভরাডুবি হয়েছে বামেদের। নতুন ভোটার তো দূরের কথা, পুরনো গুলোকেই ধরে রাখতে ব্যর্থ হয়েছে বাম শিবির। আর এর পরিণতি ভোট শতাংশ ৫-এর নীচে নেমে গিয়েছে। কংগ্রেস আর আব্বাস সিদ্দিকীর সঙ্গে জোট করেও শতাধিক বাম প্রার্থীর জমানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। এই প্রথম বাংলার বিধানসভা নির্বাচনে শূন্য হাতে ফিরতে হয়েছে বামেদের। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বামেদের এই ভরাডুবি নিয়ে আক্ষেপও প্রকাশ করেছেন।

তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই হ্যাটট্রিককে ধর্মীয় ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে লড়াই হিসেবে দেখছেন সিপিএমের প্রবীণ নেতা তথা রায়দিঘি কেন্দ্রের প্রার্থী কান্তি গঙ্গোপাধ্যায়। সংযুক্ত মোর্চা সমর্থিত সিপিএমের প্রার্থী কান্তিবাবু বলেন, ‘ধর্মীয় ফ্যাসিবাদ রোখার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভূমিকা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বাংলার জনগণ ঐতিহাসিক ভূমিকা পালন করেছে। আমি বাংলার জনগণকে কুর্নিশ জানাই।”

কান্তি গাঙ্গুলি আরও বলেন, ‘তৃণমূল সুপ্রিমোর সঙ্গে আমার নীতিগত পার্থক্য রয়েছে ঠিকই, তবে ফ্যাসিবাদকে রুখে দেওয়ার জন্য ওনার ভূমিকা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। আমাদের যেই কাজ করার কথা ছিল, সেটা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় করেছেন।”

কান্তিবাবু বলেন, ‘বাংলার যেখানে যেখানে গেরুয়া শিবিরের শিকড় ছড়িয়ে রয়েছে, সেটাও উপরে ফেলতে হবে। আগামী পঞ্চায়েত ও পুরসভা ভোটেও বিজেপিকে হারাতে হবে।” ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে কান্তিবাবু বলেন, রাজ্যে এই হিংসা বন্ধ হোক। রাজ্যে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় থাকুক।

Back to top button