‘অযোধ্যা তো ঝাঁকি হ্যায়, মথুরা অভি বাকি হ্যায়’, দেবাংশুর গলায় হিন্দুত্ববাদী স্লোগান! হল কী?

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ গতকাল বড়সড় দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে দিল্লি থেকে আসা একটি ট্রেন। হঠাৎ ট্রেনটি লাইনচ্যুত হয়ে একেবারে উঠে পড়ে রেলস্টেশনের প্ল্যাটফর্মে। ঘটনাটি উত্তরপ্রদেশের মথুরা স্টেশনের (Mathura Station)। ট্র্যাক থেকে হঠাৎ করে ট্রেন প্ল্যাটফর্মে চলে যাওয়ার ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন প্ল্যাটফর্মে থাকা যাত্রীরা।

   

মঙ্গলবার রাত ১০টা ৫০ মিনিট নাগাদ শাকুরবস্তি মথুরা ইএমইউ লাইনচ্যুত হয়ে ছুটে যায় প্ল্যাটফর্মের দিকে। সাকুরবস্তি থেকে আগত ট্রেনটি মথুরা জংশনে ঢুকতেই বিপত্তি ঘটে। ট্রেনের ইঞ্জিনটি প্ল্যাটফর্মে উঠে যেতেই ট্রেনটি অর্ধেক কাত হয়ে যায়। শোরগোল পড়ে যায় গোটা স্টেশনে।

যদিও যাত্রী থেকে টিকিট পরীক্ষক এবং ট্রেনচালক দুর্ঘটনার কিছুক্ষণ আগেই ট্রেন থেকে নেমে পড়েছিলেন। ফলে কোনও প্রাণহানির ঘটনার ঘটেনি। সেই সময় ট্রেনের ভেতরে ছিলেন রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে থাকা কিছু কর্মী। তবে তারাও সকলেই অক্ষত অবস্থায় বেরিয়ে আসেন। কিছুদিন আগেই ঘটে যাওয়া করমণ্ডল দুর্ঘটনার ঘা এখনও দগদগে। এই আবহে একের পর এক ট্রেন বিপত্তি।

আরও পড়ুন: তদন্তকারী অফিসারদের রাজ্য পুলিশের হেনস্থা! বাধ্য হয়েই সিবিআই SIT-কে রক্ষাকবচ বিচারপতির

বুধবারের দুর্ঘটনায় কোনও প্রাণহানি না ঘটলেও শুরু হয়েছে জোর রাজনৈতিক তরজা। বিরোধীদের নিশানায় কেন্দ্রের মোদী সরকার। এই ইস্যুতেই গেরুয়া শিবিরের দিকে আঙ্গুল তুলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে (PM Narendra Modi) তুলোধোনা শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের তথ্যপ্রযুক্তি (আইটি) সেলের প্রধান দেবাংশু ভট্টাচার্যের (Debangshu Bhattarcharya)!

untitled design 20230927 122809 0000

নিজের সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে বিপক্ষকে বিঁধতে এক্কেবারে ওস্তাদ দেবাংশু। তাই মথুরার দুর্ঘটনা নিয়ে মোদীকে খোঁচা দিতেও বেশি সময় ব্যয় করেননি তিনি। নিজের ফেসবুক পেজ থেকে কয়েক লাইনে মোদী সরকারকের তীব্র আক্রমণ শানান দেবাংশু। অবশ্য প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দনও জানিয়েছেন তিনি।

ঠিক কী লিখেছেন তৃণমূল নেতা? নিজের ফেসবুকে দেবাংশু লেখেন, “অভিনন্দন Narendra Modi
দেশ স্বাধীন হওয়ার পর প্রথমবার, ঘোষণা অনুযায়ী ট্রেন সত্যি সত্যি প্ল্যাটফর্মে এলো! তাও আবার মথুরা..
“অযোধ্যা তো ঝাঁকি হ্যায় মথুরা অভি বাকি হ্যায় ..
মথুরায় এটাই বাকি ছিল?”

তৃণমূল নেতার করা এই পোস্টে রীতিমতো লাইক, কমেন্টের বন্যা। কেউ কেউ তৃণমূল নেতার বক্তব্যকে সমর্থন করে স্বপক্ষে দিচ্ছেন যুক্তি। কেউ বা আবার সব বিষয়েই দেশের প্রধানমন্ত্রীকে টেনে আনার বিষয়ের বিপক্ষে।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর