টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

২০২১ এ গঙ্গায় তৃণমূলের তর্পণ করব, বিস্ফোরক মন্তব্য দিলীপ ঘোষের

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনে জয়ের স্বপ্ন দেখছে বঙ্গ বিজেপির। আজ রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষের (Dilip Ghosh) কোথায় সেরকমই আত্মবিশ্বাস ঝরে পড়ল। আজ দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘আমি প্রতিটি মন্দিরে গিয়ে ২০২১ এ শুভ শক্তির জয় আর অশুভ শক্তির বিনাশ যাতে হয়, তাঁর মানত করেছি। তৃণমূল (All India trinamool Congress) এতটাই আমাদের ভয় পেয়ে গিয়েছে যে, গতকাল আমাদের শহিদ কর্মীর পরিজনদের তর্পণ করতে বাঁধা দিয়েছে। আমি বলছি, ২০২১ এ গঙ্গায় তৃণমূলের তর্পণ করব আমরা।

আজ তিনে তৃণমূলের GST নিয়ে করা প্রতিবাদকেও কটাক্ষ করেন। উনি বলেন, ‘তৃণমূল শুধু টাকা চায়, ওদের সবথেকে বেশি টাকা মদ বিক্রি করে আসে। অন্যসব বড়বড় রাজ্য স্বাচ্ছন্দে চলছে। তাঁদের মুখে এত টাকা টাকা রব নেই।” দিলীপ ঘোষ আরও বলেন, ‘নিজেরা মারপিট করে মরছে, আর আমাদের নামে দোষ দিচ্ছে। এর আগে রাজ্যে কুকুর মরলেও সিবিআই চাইতেন মমতা। আর এখন বিরোধীরা সিবিআই চাইলে, সিআইডি ধরিয়ে দেওয়া হচ্ছে।” উনি আরও বলেন, রাজ্যে প্রতিটি খুনে কেন্দ্রীয় এজেন্সি গুলোর হাতে তদন্তভার তুলে দেওয়া উচিৎ।

দিলীপ ঘোষ/ Dilip Ghosh

আরেকদিকে, আজ আবারও প্রকাশ্যে এলো তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। শ্যামপুকুরে আয়োজন করা হয়েছিল রক্তদান শিবিরের। সেখানে তৃণমূলের (All India Trinamool Congress) একনিষ্ঠ কর্মী জয় দাসের কাছে ১০ হাজার টাকা চেয়ে বসে এলাকার যুব তৃণমূলের প্রাক্তন সভাপতি খোকন দাসের দলবল। জয় দাস টাকা দিতে অস্বীকার করায় তাকে ধরে বেদম পেটায় খোকন দাসের অনুগামীরা। এই ঘটনায় গোটা এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। স্থানীয় সুত্রে জানা যায় যে, মঙ্গলবার রাত আটটা নাগাদ শ্যামবাজার পাঁচ মাথার মোরের পাশে জয় দাসকে মারধোর করে খোকন দাসের অনুগামীরা।

জয় দাস জানান, আমি দীর্ঘদিন ধরে তৃণমূল করি নিঃস্বার্থ ভাবে কাজ করে এসেছি। কিন্তু এখন আমারই এমন পরিণতি। তিনি জানান, ১৫ তারিখ যুব তৃণমূলের প্রাক্তন সভাপতির ছেলেরা আমার কাছে এসে ১০ হাজার টাকা মাংস ভাতের জন্য দাবি করে। আমি তাঁদের স্পষ্ট বলে দিই যে, আমার কাছে টাকা নেই আমি দিতে পারব না। এরপর আমার উপর চরাও হয় তাঁরা। তিনি দোষী তৃণমূল কর্মীদের উপজুক্ত শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

আরেকদিকে, এই অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন যুব তৃণমূলের প্রাক্তন সভাপতি খোকন দাস। তিনি জানান, আমার এই বিষয়ে কোনও কিছুই জানা নেই। আমার নামে মিথ্যে অভিযোগ করা হচ্ছে। জানিয়ে দিই, জয় দাসের মাথায় আঘাত লেগেছে, এবং ওনার চোখে চারটি সেলাই পড়েছে। তিনি এই বিষয়ে শ্যামপুকুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশ ঘটনার তদন্ত করবে বলে আশ্বাস দিয়েছে।

Back to top button