চল ভাগ! ছোট বাচ্চাদের আবদার শুনে ‘সংলাপ’ আওড়ালেন মিঠুন, হতবাক রাজ্যবাসী

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বিজেপি (Bharatiya Janata Party) নেতা কথা বাংলার ‘ঘরের ছেলে’ মিঠুন চক্রবর্তীর (Mithun Chakraborty) সঙ্গে হাত মেলানোর জন্য উন্মাদনা চরমে কচিকাঁচাদের, কিন্তু সেই উন্মাদনায় সাড়া দেওয়া তো দূরের কথা, বরং তাদের একপ্রকার হতাশ করে বলিউড অভিনেতার জবাব, ‘চল ভাগ’, যা ঘিরে ইতিমধ্যেই সরগরম হয়ে উঠেছে বঙ্গ রাজনীতি। মিঠুন চক্রবর্তী সমালোচনায় সরব তৃণমূল (Trinamool Congress)। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি।

   

উল্লেখ্য, দীর্ঘ বহু দশক ধরে রঙিন পর্দায় একের পর এক সংলাপ জনপ্রিয় হয়েছে মিঠুন চক্রবর্তীর। শুধু তাই নয়, পরবর্তীতে রাজনীতিতে প্রবেশ করে একের পর এক সভা থেকেও জনপ্রিয় সকল ডায়লগ দিতে দেখা যায় তাঁকে। তবে বর্তমানে সংলাপে হাততালি দেওয়া তো দূরের কথা, বরং সৃষ্টি হয়েছে নয়া বিতর্কের।

ঘটনাটি কি? সূত্রের খবর, গত শনিবার আসানসোল জেলা অফিসে বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারকে পাশে নিয়ে বৈঠক করেন মিঠুন চক্রবর্তী। এক্ষেত্রে মণ্ডল প্রেসিডেন্ট থেকে শুরু করে অন্যান্য একাধিক কাউন্সিলররা উপস্থিত ছিল। জেলা অফিসের বাইরে তাদের প্রিয় অভিনেতার দেখা পাওয়ার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেছিল ছোট ছোট ছেলেমেয়েরা।

অভিযোগ, দফতরে প্রবেশ করার সময় তাদের দেখা দিলেও বেরিয়ে যাওয়ার সময় মিঠুন বলেন, ‘চল ভাগ’ এবং এরপরই বলিউড স্টার চলে যান পাণ্ডবেশ্বরের উদ্দেশ্যে। এই সংক্রান্ত একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

মিঠুন চক্রবর্তীর এহেন ব্যবহার প্রসঙ্গে এদিন রানিগঞ্জের তৃণমূল বিধায়ক তাপস বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “ছোট ছোট বাচ্চাদের সঙ্গে হাত মেলানো এবং তাদের স্পর্শ করতে যাদের রুচিতে বাধে, তারা বাংলার মানুষের সেবা কি করে করতে পারে? উনি উচ্চমানের একজন অভিনেতা। তাই এটা করেছেন।”

all india trinamool congress,Bharatiya Janata Party,mithun chakraborty,tapas banerjee,sukanta majumdar,pandabeshwar,asansol

যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে পদ্মফুল শিবির। এক বিজেপি নেতা বলেন, “এরকম কোন ঘটনা ঘটেনি। সাধারণ মানুষের সঙ্গে হাত মেলানো কিংবা তাদের সঙ্গে ছবি তোলা, সবকিছুতেই এগিয়ে থাকেন মিঠুন চক্রবর্তী। সর্বত্রই তাঁকে মানুষের সঙ্গে মিশে যেতে দেখা যায়। তাই যে কথা বলা হচ্ছে, তা মিথ্যে।”