টাইমলাইনভারত

ভবিষ্যতের ভারতের জন্য ভয়ানক অস্ত্র নির্মাণ করছে DRDO, ভয়ে কাঁপবে শত্রুদেশগুলি

বাংলাহান্ট ডেস্ক: প্রত‍্যেকটি মানুষ যেমন নিজের পরিবারের সুক্ষার জন্য ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে নানা রকম প্রতিরক্ষার ব‍্যবস্থা করে, তেমনই শত্রু দেশের হাত থেকে নিজের দেশকে রক্ষার জন্য এবং ভবিষ্যতে সুষ্ঠভাবে এগিয়ে যাওয়ার জন্য শক্তিশালী অস্ত্র প্রস্তুত রাখে সব দেশ। শুধুমাত্র তৈরি করেই ফেলে রাখা নয়, তা পরিচালনার ব‍্যবস্থাও করা হয়।

আর সকল দেশের ন‍্যায় ভারতও (India) ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে, নিজের দেশকে শত্রুর হাত থেকে রক্ষা করতে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার দিকে এগোচ্ছে। ভারতের এই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করছে DRDO। তবে ভারতের এই হাতিয়ার কোন মিসাইল, পরমাণু হাতিয়ার বা কোন অত‍্যাধুনিক যুদ্ধ বিমান নয়। এটি একটি উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন হাতিয়ার। এর নাম দেওয়া হয়েছে ডাইরেক্টেড এনার্জি ওয়েপন।

ইলেকট্র ম‍্যাগনেটিভ রেডিয়েশন ওয়েপন
এই উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন হাতিয়ারের সাহায্যে বহুদূরে থাকা কোন বিমান বা মিসাইলের মধ্যে একবারে ধ্বংস করার ক্ষমতা প্রয়োগ করা যাবে। এই হাতিয়ারের নাম ইলেকট্র ম‍্যাগনেটিভ রেডিয়েশন ওয়েপন।

এই ধরনের হাতিয়ার ইলেকট্রনিক উপকরণ সম্পন্ন হাতিয়ার ধ্বংস করতে ব‍্যবহৃত হয়। এই সিস্টেম ব‍্যবহার করে কোন হাতিয়ারের উদ্দেশ্যে পর্যাপ্ত পরিমাণে শক্তি প্রয়োগ করে সেটিকে ধ্বংস করে দেওয়া সম্ভব হয়।

লেজার ওয়েপন
এরপর আসি লেজার ওয়েপনের বিষয়ে। এটি বর্তমানের আধুনিক অস্ত্রের মধ্যে সবচেয়ে ভয়ংকর অস্ত্র। এই হাতিয়ারের সাহায্যে দূরে কোন লক্ষ্যকে স্থির করে লেজার ওয়েভ পাঠানো হয়। যা কিছু সময়ের মধ্যেই সেই লক্ষ্য বস্তুতে হাজার ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা বাড়িয়ে সেটি ধ্বংস করতে সাহায্য করবে।

সাউন্ড ওয়েব ওয়েপন
সাউন্ড ওয়েব ওয়েপনকে কাজে লাগিয়ে উচ্চ মাত্রার আওয়াজ তৈরি করা যায়। যা কোন মানুষের কানের পর্দা সহজেই নষ্ট করে দেয়। যুদ্ধ ক্ষেত্রে শত্রুর কানের পর্দার পাশাপাশি বেশ কিছু হাতিয়ারও ধ্বংস করতে সক্ষম এই শক্তিশালী হাতিয়ার।

পালস্ড এনার্জি প্রোজেক্টাইলস
এরপর দেখে পালস্ড এনার্জি প্রোজেক্টাইলস এমন এক হাতিয়ার, যার সাহায্যে ইনফারেড লেজার পালস নির্মাণ করা যায়। যা দ্রুতই লক্ষ্যের উপর প্লাজমা কিরণ ছড়াতে সক্ষম। সাউন্ড, শক এবং ইলেক ম‍্যাগনেটিভ তরঙ্গ নির্গত হয়। যা সাহায্যে সহজেই শত্রুকে মাত দেওয়া যাবে।

Back to top button