টাইমলাইনআন্তর্জাতিক

মদ খেলে কমার বদলে কয়েকগুন বেড়ে যায় করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি : WHO

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ করোনা ভাইরাস ছড়াতেই গুজব রটেছিল মদ খেলে নাকি করোনা আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা নেই। এবার সেই গুজবকেই নস্যাৎ করে দিল WHO. সম্প্রতি WHO জানিয়েছে, অ্যালকোহল সেবন করলে করোনা আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা অনেক গুন বেড়ে যায়।

পাশাপাশি, অ্যালকোহল-র থেকে ‘কমিউনিকেবল’ ও ‘ননকমিউনিকেবল’ বিভিন্ন রোগ হবার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। এটা মানুষকে আরও দুর্বল করে তোলে। এর ফলে কমে ইমিউনিটি এবং সহজেই করোনার মত একাধিক ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণ করার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যেই মোদি সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দ্বিতীয় দফার লকডাউন এর সময়ে দেশে সম্পূর্ণ ভাবে বিক্রি বন্ধ থাকবে বিড়ি, সিগারেট, মদ ও গুটখা জাতীয় নেশা দ্রব্যের। সরকার জানিয়েছে, ডিসাস্টার ম্যানেজমেন্ট অ্যাক্ট ২০০৫ অনুসারে দেশে বিড়ি, সিগারেট, মদ ও গুটখা জাতীয় নেশা দ্রব্যের বিক্রি পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হল। এই জাতীয় দ্রব্য বিক্রি করতে গিয়ে ধরা পড়লে বিক্রেতাকে কড়া শাস্তির মুখে পড়তে হবে বলেও হুশিয়ারি দিয়েছে মোদি সরকার।

সরকারের বক্তব্য, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানোর জন্যই দেশে লকডাউন অবস্থার জারী করা হয়েছে। আর এই সময় যদি তা না মেনে অনেক মানুষ একত্রিত ভাবে সিগারেট মদের দোকনে জড়ো হয়, তাতে সংক্রমণের মাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়। প্রসঙ্গত, সিগারেট, মদ ও অন্যান্য নেশা দ্রব্য থেকে সরকারের বিপুল রাজস্ব আদায় হয়। তবুও এই পরিস্থিতিতে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া আটকাতে এই সিদ্ধান্ত নিতেই হল সরকারকে।

 

Back to top button