ইস্তফা গ্রহণ করেনি স্পিকার! পরোয়া না করেই অবশেষে বিজেপিতে যোগ তৃণমূল বিধায়ক তাপসের

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ সোমবার তৃণমূল ছাড়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন বরানগরের বিধায়ক তাপস রায় (Tapas Roy)। একইসঙ্গে বিধায়ক পদ থেকেও ইস্তফা দিয়েছিলেন। বিধানসভায় গিয়ে স্পিকারের কাছে নিজের পদত্যাগ পত্র জমা দেন। এরপর থেকেই এই প্রবীণ রাজনীতিকের বিজেপিতে (BJP) যোগদানের কানাঘুষো শোনা যাচ্ছিল। অবশেষে সকল জল্পনা সত্যি করে বুধবার পদ্ম-শিবিরে যোগ দিলেন তিনি।

লোকসভা ভোটের (Lok Sabha Election 2024) আগে ঘাসফুল ছেড়ে পদ্মফুলে যোগ দিলেন তাপস রায়। আজ রাজ্য বিজেপির সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এবং বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে বিজেপিতে যোগ দেন তিনি। তৃণমূলের (TMC) সঙ্গে দু’দশকেরও বেশি সময়ের সম্পর্ক ছিন্ন করে গেরুয়া শিবিরের অংশ হলেন এই বর্ষীয়ান রাজনীতিক।

এদিন বিজেপিতে যোগ দিয়ে শান্তির বাংলা গড়ার কথা শোনা যায় তাপস রায়ের মুখে। তিনি বলেন, ‘আজ থেকে আমি বিজেপি এবং মোদী পরিবারের সদস্য হলাম। যতদিন রাজনীতিতে আছি, এই পরিবারের সদস্য হয়ে থাকতে চাই। যা দায়িত্ব দেওয়া হবে তা পালন করবো। রাজ্যের এবং কেন্দ্রের নেতৃত্বের কাছে আমায় গ্রহণ করায় কৃতজ্ঞ। রাজ্যে যে অরাজকতার পরিস্থিতি, শেখ শাহজাহান, শিবু হাজরা, উত্তম সর্দারদের সরকার চলছে। যে সরকার আইনের কথা বলে কিন্তু হাই কোর্ট, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মানে না। পশ্চিমবঙ্গ থেকে জলদস্যুদেরসরিয়ে শান্তির বাংলা গড়ার লক্ষ্যে বিজেপিতে যোগ দিলাম’।

আরও পড়ুনঃ সন্দেশখালির নির্যাতিতাদের সঙ্গে দেখা! শুনলেন শাহজাহানের অত্যাচারের ‘নির্মম’ কাহিনী, হতবাক প্রধানমন্ত্রী

এদিকে বিধায়ক পদে ইস্তফা দিলেও তাপস রায়ের পদত্যাগ পত্র গ্রহণ করেনি বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। পদ্ধতিগত ত্রুটি থাকার কারণে বরানগরের বিধায়কের ইস্তফাপত্র গ্রহণ করা হয়নি। বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার মধ্যে নতুন করে পদত্যাগ পত্র জমা করতে হবে তাঁকে। একথা প্রকাশ্যে আসার পর তাপসের বিজেপিতে যোগদান নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছিল। তবে শেষ অবধি সংশয়ের মেঘ সরিয়ে পদ্ম শিবিরের অংশ হলেন তিনি।

tapas roy suvendu adhikari sukanta majumdar

জানা যাচ্ছে, টাইপ করে নিজের ইস্তফাপত্র জমা দিয়েছিলেন তাপস রায়। তবে নিয়ম বলছে, পদত্যাগ পত্র হাতে লিখে জমা করতে হয়। আগামীকাল হাতে লিখেই নিজের ইস্তফাপত্র জমা করবেন বলে খবর। এদিকে নতুন দলে যোগ দিয়ে তাপস বলেন, তাঁকে যা দায়িত্ব দেওয়া হবে সেটাই পালন করবেন। গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে তাঁকে প্রার্থী করতে পারে বিজেপি।

Sneha Paul
Sneha Paul

স্নেহা পাল, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরের পর সাংবাদিকতা শুরু। বিগত প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর