বকেয়া প্রায় আড়াই কোটি! প্রাপ্য না মেলায় রাইস মিলে তালা ঝুলিয়ে দিল বাংলার কৃষকেরা

বাংলা হান্ট ডেস্ক: ধান বিক্রি করে পর্যাপ্ত টাকা না মেলার অভিযোগ, ধান বিক্রির ন্যায্য টাকা দিতে গড়িমসি করছে কর্তৃপক্ষ। এই প্রতিবাদে পূর্ব বর্ধমানের (Purba Bardhaman) নাড়ুগ্রাম অঞ্চলের পুরশুনার মিলের (Rice Mill) গেটে তালা লাগিয়ে বিক্ষোভে সামিল হলেন কৃষকরা।

   

কৃষকদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন হয়ে গেলে সেই টাকা মেটাচ্ছে না কর্তৃপক্ষ। এই প্রসঙ্গে ধান বিক্রেতা সুরাত আলি মল্লিক বলেন, ‘দীর্ঘ আট মাস আগে আমি এই মিলেই ধান বিক্রি করেছিলেন। সেই থেকে এখনও পর্যন্ত ধান বিক্রি করার যে প্রাপ্য টাকা সেই টাকা পাইনি। টাকা চাইতে এলে প্রত্যেকবারই বলে আজ দিচ্ছি, কাল দিচ্ছি।’ তিনি আরও বলেন, ‘এক মালিক থাকলে অন্য এক মালিক থাকেন না। টাকা চাইতে গেলে একজন অন্যজনের অনুপস্থিতির কারণ দেখিয়ে টাকা দিতে চান না। চাল অন্যত্র বিক্রি হওয়ার পরও ন্যায্য মূল দেওয়া হয় না আমাদের।’

আরও পড়ুন: মুসলিম সংরক্ষণকে সংবিধান বিরোধী ঘোষণা যোগী-শাহের! বাতিল হবে ৩৭০-র মতোই? তোলপাড় দেশ

জানা গিয়েছে, ওই মিলে প্রায় ১৫ থেকে ২০ জনের বেশি কৃষক ধান দিয়েছিলেন। সব মিলিয়ে কৃষকদের প্রাপ্য টাকা দুই থেকে আড়াই কোটি। এর আগে কৃষকদের (Farmers) জানানো হয়েছিল যে, এক মাসের মধ্যে বকেয়া টাকার অর্ধেক পরিশোধ করবে রাইসমিল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু সেই টাকা এখনও মেটানো হয়নি‌। সেই কারণেই কৃষকরা রাইস মিলের গেটে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ দেখান। তবে অন্যদিকে, মিলের মালিক শেখ সুরজউদ্দিন।
কৃষকদের সমস্ত টাকা নির্ধারিত দিনের মধ্যে মিটিয়ে দেওয়া হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন। যদিও প্রাপ্য টাকা ফিরে পেতে মরিয়া ওই কৃষকেরা।

সম্পর্কিত খবর