‘বিয়ের বয়স চলে যাচ্ছে, মেয়ে দেখতে যাব …” ভাইরাল পুলিশের ছুটি চাওয়ার চিঠি

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক : বিয়ে (Marriage) প্রতিটি মানুষের জীবনেই একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। বিয়ে নিয়ে সবারই কোন না কোনও বিশেষ ইচ্ছা থাকে। তবে অনেকে ক্ষেত্রেই দেখা গেছে যে, সবকিছু ঠিকঠাক প্ল্যান মাফিক চললেও শেষমেশ চাকরি বিয়ের পথে অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে। সম্প্রতি এরকমই একটি ঘটনার সাক্ষী থেকেছে উত্তর প্রদেশ (Uttar Pradesh)।

সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশ পুলিশের একজন কনস্টেবলের একটি চিঠি সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক ভাইরাল (Viral) হয়েছে। জানিয়ে রাখি, এই চিঠি মূলত ছুটির আবেদনের সাথে সম্পর্কিত। চিঠির মাধ্যমে ওই কনস্টেবল ছুটি নেওয়ার কারণ জানিয়েছেন। তবে কী এমন আছে ঐ চিঠিতে যার কারণে তা ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হচ্ছে! চলুন দেখে নিই বিস্তারিত।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, পুরো বিষয়টি ফারুখাবাদ জেলার। সংশ্লিষ্ট কনস্টেবল কাদ্রিগেট থানায় পোস্টেড। তিনি ছুটির জন্য সিও সিটিতে আবেদন করেছিলেন। তার বাবাও পুলিশ বিভাগে কর্মরত। তার এই চিঠিটি মূলত বিয়ের জন্য ছুটি চেয়ে লেখা। তিনি লিখেছেন, অনেক কষ্টে একটা ভালো সম্পর্ক এসেছে। বিয়ের বয়সও ঘনিয়ে আসছে। তার ছুটি যেন মঞ্জুর করা হয়।

আরও পড়ুন : ‘শেষটা ভালো হবে…’ বিশেষ বান্ধবী শ্রীতমার জন্মদিনে এ কীসের ইঙ্গিত দিলেন সোমবাবু ঋত্বিক? ছড়াল জল্পনা

চিঠির মূল বয়ানে লেখা হয়েছে, আবেদনকারীর বাবা টেলিকমিউনিকেশনের মাধ্যমে আবেদনকারীকে জানিয়েছিলেন যে তিনি আবেদনকারীর জন্য পাত্রী দেখতে যাচ্ছেন। আবেদনকারীর পুলিশে চাকরির তিন বছর হতে চলেছে। আবেদনকারী এখনো বিয়ে করেননি। স্যার, পুলিশ সদস্যদের বৈবাহিক সম্পর্কও নগণ্য হয়ে উঠছে। স্যার অনেক কষ্টে একটা ভালো সম্পর্ক পেয়েছি। আবেদনকারীর বিয়ের বয়সও শেষ পর্যায়ে।’

আরও পড়ুন : টলিপাড়ার আকাশে আবার সিঁদুরে মেঘ, বন্ধের মুখে সব সিরিয়াল! মাথায় হাত শিল্পীদের

uttar pradesh

এই মর্মে ৫ দিনের ছুটি চাওয়া হয়েছে ঐ চিঠিতে। উল্লেখ্য, কনস্টেবল রাঘব চতুর্বেদী আগ্রার শাহগঞ্জের বাসিন্দা। বর্তমানে তিনি পাঁচালঘাট পদে কর্মরত আছেন। কনস্টেবলের কথায়, কেউ যদি সততার সঙ্গে তার সমস্যাগুলো অফিসারদের কাছে তুলে ধরেন তাহলে কোনো সমস্যা নেই। সমস্যা হয়ত সত্যিই নেই তবে নেটনাগরিকরা এই চিঠি পড়ে বেশ মজা পেয়েছেন।

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর