টাইমলাইনভারত

বন্যায় তছনছ অসম, প্রায় ৩ লক্ষ মানুষ আশ্রয় নিয়েছে রাস্তার ধারের তাঁবুতে! মৃত ১০০-র বেশি

বাংলাহান্ট ডেস্ক : সময় যত এগোচ্ছে ততই খারাপ হচ্ছে অসমের পরিস্থিতি। ইদানিং কালের অন্যতম ভয়াবহ বন্যায় লণ্ডভণ্ড উত্তর-পূর্বের এই রাজ্যটি। এখনও পর্যন্ত শুধুমাত্র বন্যার কারণে অসমে মৃত্যুর সংখ্যা একশো পেরিয়েছে বলেই সরকারি সূত্রের খবর। গোটা অসমের প্রায় সবকটি জেলাই এখন বন্যার কবলে।

টানা বৃষ্টিতে অসমের প্রায় সবকটি নদীর জলই বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে। এই কারণেই বন্যা কবলিত অসমের একাধিক এলাকা। ফুঁসে উঠেছে ব্রহ্মপুত্র ও বরাক নদীও। এই দুটি নদীর শাখানদীগুলির পরিস্থিতিও চিন্তা বাড়াচ্ছে প্রশাসনের। বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে কুশীয়ারি নদীও।

জানা যাচ্ছে, এই রাজ্যের প্রায় ২৮টি জেলাই বন্যার কবলে। প্রায় ৩৩ লক্ষ মানুষ বন্যার কারণে বিপর্যস্ত। শুধুমাত্র নাগোন জেলায় প্রায় ১৫৫ টি গ্রাম জলের তলায়। ঘর বাড়ি সব তলিয়ে গেছে। মানুষ আশ্রয় নিয়েছে জাতীয় সড়কের ধারে। তাঁবুই এখন তাঁদের মাথা গোঁজার একমাত্র ঠাঁই। নাগোন জেলার রাহা বিধানসভা ক্ষেত্রে প্রায় ১.৪২ লক্ষ মানুষ বন্যার কারণে প্রবল ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। সবচেয়ে চিন্তার বিষয় এলাকার নিকাশি ব্যাবস্থা খুব একটা ভালো না হওয়ায় বন্যার জল দ্রুত নামিয়ে ফেলার আশাও খুব একটা বেশি দেখা যাচ্ছে না। জানা যাচ্ছে, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোওয়াল বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শনে এসেছিলেন। নাগোন জেলায় আশ্রয় তাঁবুর মধ্যেই ছোটোদের জন্য বিদ্যালয়ের ব্যাবস্থা করা হয়েছে। সকাল থেকেই প্রার্থনা, ব্যায়াম ছবি আঁকা শেখানো হচ্ছে তাদের।

সরকারি পরিসংখ্যান বলছে ২৮ টি জেলায় প্রায় ৩৩ লক্ষেরও বেশি মানুষ বন্যার প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। প্রায় ২.৬৫ লক্ষ মানুষ আশ্রয় নিয়েছেন তাঁবুতে। এখনও পর্যন্ত এই প্রবল বন্যার কারণে ১১৮ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া যাচ্ছে।

Related Articles

Back to top button