টাইমলাইনভারত

করোনার রহস্য ভেদে ফেলুদা! বাঙালি বিজ্ঞানীদের তৈরি টেস্ট কিটের দাম মাত্র ৫০০ টাকা

করোনার (corona virus) রহস্য ভেদে এবার ফেলুদা ! হ্যাঁ, ঠিকই পড়েছে বাঙালির একান্ত প্রিয় প্রদোষ মিত্রই এবার খুঁজে দেখবে আপনার শরীরে মারন ভাইরাস বাসা বেঁধেছে কিনা। করোনা পরীক্ষায় দুই বাঙালি বিজ্ঞানীর আবিস্কৃত ‘ফেলুদা কিট’ (feluda kit) এবার বাজারে আনার অনুমতি পেল টাটা। মাত্র ৫০০ টাকায় করোনা পরীক্ষা সম্ভব হবে এই কিটের সাহায্যে।

শৌভিক মাইতি ও দেবজ্যোতি চক্রবর্তী নামের দুই বাঙালি বিজ্ঞানীর হাত ধরে বাজারে আসছে এই স্বল্প মূল্যে করোনা পরীক্ষার উপায়। দিল্লির কাউন্সির অফ সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চেস ইনস্টিটিউট অফ জেনোমিক্স অ্যান্ড ইন্টেগ্রেটিভ বায়োলজি (CSIR-IGIB)-এ তৈরি হয়েছে এই ফেলুদা কিট। ড্রাগ কন্ট্রোলারের অনুমতির পর এই কিটই আসতে চলেছে এবার বাজারে। নিয়ে আসছে ভারতের বিখ্যাত টাটা গ্রুপ।

জানা যাচ্ছে, এই ফেলুদা কিট করোনা নির্মাণে Cas9 নামে বিশেষ এক ধরনের প্রোটিনের ব্যবহার করবে৷ এই প্রোটিনের ব্যাবহার করে রোগ নির্ণয় ভারতে এই প্রথম। বলা হয়েছে, ভবিষ্যতেও অন্যান্য রোগ নির্ণয় এর ক্ষেত্রে এই প্রযুক্তি ব্যাবহার করা যাবে। সম্পূর্ণ ভাবে ভারতে তৈরি এই কিট সস্তা এবং নির্ভরযোগ্য।

বাজারে প্রাপ্ত বিভিন্ন প্রেগনেন্সি নির্ণায়ক কিট যেভাবে কাজ করে একই ভাবে কাজ করবে ফেলুদা কিটও। ল্যাবরেটরিতে রং এর পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে এর ফলাফল জানা যাবে। পাশাপাশি এই কিটের দেওয়া ফলাফল ১০০ শতাংশ নির্ভুল বলে দাবি করা হচ্ছে। বেসরকারি ক্ষেত্রে যেখানে করোনা পরীক্ষা সর্বোচ্চ ৪৫০০ টাকা বেঁধে দেওয়া হয়েছে সেখানে এই কিট সাধারণ মধ্যবিত্তের হাতের নাগালে।

 

Back to top button