টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন প্রতিবাদ: বিক্ষোভের জেরে ক্ষতিগ্রস্থ বাস মালিকদের মাথায় হাত, মিলবে না বিমার পুরো টাকা

বাংলা হান্ট ডেস্ক :  সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন প্রণয়নের পর থেকে গত সপ্তাহের শুক্রবারের পর বারবার উত্তপ্ত হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। রেল অবরোধ করে ভাঙচুর তারপর ট্রেন জ্বালিয়ে দেওয়া একই সঙ্গে রাস্তা অবরোধ করে বাসে ভাঙচুর চালিয়ে আগুনও জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্যের পাশাপাশি দিল্লিতেও একই অবস্থা। তবে বাস ভাঙচুরের জেরে কার্যত বেকায়দায় পড়েছেন বাসের মালিকরা।

কারণ রাজ্যে যে সমস্ত জায়গায় বাস ভাঙচুর করে দেওয়া হয়েছে কিংবা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে এখনও অবধি সেই বাসের সংখ্যা 55 , আর সেই বাসগুলির যা দাম ক্ষতিপূরণ হিসেবে সেই দামের 70 শতাংশ টাকা দেবে বিমা সংস্থাগুলি অর্থাত্ 30 লক্ষ টাকার বাসগুলির দাম পাওয়া যাবে 21 লক্ষ টাকা আর তাতেই বিপাকে পড়েছেন বাস মালিকরা।

যেহেতু এই সমস্ত বেসরকারি বাসগুলি বয়স প্রায় ছয় থেকে 10 বছর তাই তো কী ভাবে বাস গুলি মেরামতি করা হবে তা নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন বাস মালিকরা। বিশেষ করে যে চোদ্দটি বাস সম্পূর্ণ ভাবে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে তা নিয়ে আজ তিনি দেওয়ার দাবি তুলবেন বাসমালিকরা এমনটাই সূত্রের খবর।

পশ্চিমবঙ্গে যে ভাবে রেলের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে রবিবার সেই সংক্রান্ত একটি তথ্য প্রকাশ্যে এসেছিল। তার পরেই রাজ্যে রেলের নিরাপত্তার জন্য আট কোম্পানি বাহিনী পাঠানো হয়েছে রাজ্যে।

বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্টেশনগুলিতে এই অতিরিক্ত নিরাপত্তা বাহিনী মোতায়েন করা হবে বলে সূত্রের খবর। যে ভাবে মুর্শিদাবাদের আজিমগঞ্জ সুজনপুর ধুলিয়ান গঙ্গা নোয়াপাড়া হল্ট লালগোলা, কৃষ্ণপুর থেকে শুরু করে শিয়ালদহ বজবজ শিয়ালদহ ডায়মন্ড হারবার নলহাটি আজিমগঞ্জ এর বিভিন্ন স্টেশন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তার জেরে এখনও অবধি স্তব্ধ রয়েছে বেশ কয়েকটি রুটে ট্রেন, এমনকি কয়েকটি ট্রেনকে বাতিল করে দেওয়া হয়েছে।

 

 

Back to top button